ব্যক্তি স্বার্থে শ্রমিক ব্যবহার:ধর্মঘট প্রত্যাহার করলেন বির্তকিত ফলিক – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ব্যক্তি স্বার্থে শ্রমিক ব্যবহার:ধর্মঘট প্রত্যাহার করলেন বির্তকিত ফলিক

প্রকাশিত: ৩:১৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৭

ব্যক্তি স্বার্থে শ্রমিক ব্যবহার:ধর্মঘট প্রত্যাহার করলেন বির্তকিত ফলিক

সিলেট কদমতলী বাস টার্মিনাল এর অর্ভ্যন্তরে তাজমহল রেস্টুরেন্টের দখল পাল্টা দখল নিয়ে পরিবহন ধর্মঘট আহবান ঘটনায় তোলপাড় চলছে। কেননা শ্রমিক বিধি অনুসারে আগাম ঘোষনা ছাড়া পরিবহন ধর্মঘট এর কোন সুযোগ নেই। বিভিন্ন প্রক্রিয়া সম্পূন্ন করার পর একান্ত বাধ্য হলে শ্রমিক মালিক, পরিবহন ধর্মঘটের মতো কোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। কিন্তু ইদানিং বিশেষ করে সিলেটে বিধি বিধানের তোয়াক্কা না করে পরিবহন ধর্মঘটকে হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করছে পরিবহন সংশ্লিষ্ট একটি চিন্থিত মহল। এসব অপতৎপরতার বিরুদ্ধে প্রশাসনের নিরবতায় জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে। এদিকে আজ সকাল ১১টার সময় প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে এক বৈঠক শেষে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রমিক নেতা ফলিক। এদিকে, ব্যক্তিগত লিজ নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে এই তাজমহল পরিচালনা করে আসছেন বিএনপি নেতা ও দলের অন্যতম অর্থ যোগান দাতা পরিবহন ব্যবসায়ী আবুল কালাম। একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, আগাগোড়া অসদুপায় অবলম্ভন করে টার্মিনালের ভেতরে ব্যক্তিগতভাবে এই রেস্টুরেন্ট এর লিজ গ্রহন করেন আবুল কালাম। এ নিয়ে শ্রমিক-মালিক পক্ষ বিভিন্ন সময় আপত্তি দিল্ওে কর্তৃপক্ষ লিজ বাতিল বা রেস্টুরেন্টি ব্যক্তি কালামের নিকট থেকে উদ্ধার করেনি। পরবর্তীতে টার্মিনালের লিজ গ্রহন করেন যুবলীগ নেতা মিছবাহ তালুকদার সহ একটি গ্র“প। তারা বৈধ উপায়ে লিজ গ্রহন করার পর উচ্চ আদালতে একটি রিট এর মাধ্যমে তাজমহল রেস্টুরেন্ট এর নিয়ন্ত্রন পান। কিন্তু আদালতের এ নির্দেশ উপেক্ষা করে বিএনপি নেতা আবুল কালাম বিভিন্ন পায়তারা শুরু করে তাদের দমিয়ে রাখার চেষ্টা করেন। এ কাজে তার সহযোগি হন বির্তকিত শ্রমিক নেতা সেলিম আহমদ ফলিক। তিনি নিজকে আওয়ামীলীগের ঘরনার দাবী করলেও টার্মিনালে অভ্যন্তরীন স্বার্থ সহ ব্যক্তিগত ফায়দা হাসিলে তিনি বিএনপি নেতা আবুল কালামের ঘোষিত রক্ষক। একারনে ফলিক এর কাঁধে ভর করে আবুল কালাম বেপরোয়া। মুক্তিযুদ্ধের স্ব-পক্ষ শক্তি আ্ওয়ামীলী যুবলীগ-ছাত্রলীগ এর কর্মীরা বারবার টার্মিনাল এলাকায় এসে আবুল কালাম ্ও তার বাহিনী হাতে জিম্মি হচ্ছে। আর কালামকে প্রত্যক্ষ পরোক্ষ ভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন কথিত শ্রমিক নেতা ফলিক। এরই ধারাবাহিকাতায় মঙ্গলবার তাজমহল রেস্টুরেন্ট এর প্ওানা টাকা চাইতে গিয়ে কালাম বাহিনীর হাতে হামলার শিকার হয় ছাত্রলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য শাহিনূর রহমান শাহিন। বেলা ২টায় কালামের মদদে ্ও ফলিক এর আশ্রয়ে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার শাহিনের অবস্থা আশংকাজনক। অবস্থার এমন পর্যায়ে গোটা পরিস্থিতি ভিন্নখাতে প্রবাহের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেন ফলিক। এর মধ্যে দিয়ে তিনি জানান দেন কালামের গডফাদার তিনি। বিএনপি নেতাকে রক্ষার নামে আ্ওয়ামীলীগ যুবলীগ ছাত্রলীগ নেতা কর্মীকে নাজেহাল শুধু করছেন না, সাধারন যাত্রীদেরও তিনি জিম্মি করে রাখছেন পরিবহন এর চাকা বন্ধ করে। তার এহেন কর্মকান্ডে সরকারের জনবান্ধব সেবা কার্যক্রম লংগিত হচ্ছে। এতে ফায়দা নিচ্ছে বিএনপি তথা বিরোধীদল। পরিবহন ব্যবসায়ী আবুল কালাম, ফলিক এর শ্লেটারে সরকার ্ও সরকার দলীয় লোকদের কোনঠাসা করছেন, পাশাপাশি সে বিএনপির নিকট গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। এ ব্যাপারে জেলা শ্রমিক ইউনিয়ন এর সভাপতি সেলিম আহমদ ফলিক বলেন, বিষয়টি ব্যক্তিগত হল্ওে তাকে কে বা কারা গালিগালাজ করেছে, সেকারনে শ্রমিকরা অসন্তোষ হয়ে পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। তিনি বলেন আবুল কালাম বিএনপি করে, আইনশৃংখলা বাহিনী তার ব্যাপারে নিরব, আমার কি করার আছে। যদি কর্তৃপক্ষ তার ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা করে, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবো। জেলা শ্রমিক ইউনিয়ন এর সেক্রেটারী রাকিব উদ্দিন রফিক বলেন, আমি অসুস্থ। আমি বা আমরা এই ধর্মঘটের পক্ষে নই, ব্যক্তি স্বার্থে কেন শ্রমিক ব্যবহার করা হবে তার জবাব অবশ্যই চ্ওায়া হবে। তিনি বলেন, হুট করে পরিবহন ধর্মঘটের নামে সাধারন মানুষদের যারা ভোগান্তিতে ফেলেছে, তাদের মতলব উদঘাটন করে বিচারের আ্ওতায় আনতে হবে। শ্রমিক কারো ব্যক্তি স্বার্থে ব্যবহার হ্ওয়ার জন্য নয়, কিন্তু দু:জনক হল্ওে সত্য আজ সেই ঘটনার জন্ম দিয়ে শ্রমিকদের মান মর্যাদা প্রশ্নবিদ্ধ করা হলো। এক কথায় ব্যক্তির জন্য অর্থনৈতিক ক্ষতি সহ তাদের লাঠিয়াল হিসাবে ব্যবহার করা স্পর্ধা দেখিয়েছি স্বার্থান্বেষি একটি মহল। বিএনপি নেতা ্ও পরিবহন ব্যবসায়ী আবুল কালাম বলেন, পরিবহন খাতে আমার অভিজ্ঞতা দীর্ঘদিনের, ফলিক সহ আরো যারা আছেন, তাদের নিকট থেকে দেখা বা শেখার আমার কিছু নেই। দলগত ভাবে আমরা ভিন্ন মতাদর্শের হতে পারি, তবে স্বার্থগতগত ভাবে আমরা পাশাপাশি। যদ্ওি তাজমহল রেস্টুরেন্টটি আমার নামে লিজ নেয়া, তাই বলে আমার সমস্যায় ফলিক সাহেব পাশে থাকবেন এটা আমি আশা করি, ভবিষ্যতে তার কোনো সমস্যায় আমি পাশে দাড়াবো এট্ওা বাস্তবতা।