বড়লেখায় ৫৫ ঘন্টার পর অপহৃত ব্যবসায়ী উদ্ধার, গ্রেফতার ৩ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

বড়লেখায় ৫৫ ঘন্টার পর অপহৃত ব্যবসায়ী উদ্ধার, গ্রেফতার ৩

প্রকাশিত: ৪:৩৩ অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০২১

বড়লেখায় ৫৫ ঘন্টার পর অপহৃত ব্যবসায়ী উদ্ধার, গ্রেফতার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক::
অপহরণের প্রায় ৫৫ ঘন্টার পর অপহৃত মৌলভীবাজারের বড়লেখার ব্যবসায়ী শশাংক কুমার দত্তকে (৫৮) উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

রোববার (৬ জুন) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে পুলিশ, ডিবি ও র‌্যার যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউপির বাহাদুরপুর চা বাগানের নির্জন জঙ্গল থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় দুই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এই ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারীদের একজনকে সোমবার (৭ জুন) দুপুরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের চন্ডিনগর গ্রামের সবুজ হোসেন, ইব্রাহিম আলীর ছেলে ইসমাইল আহমদ ওরফে হারুন ও বোবারথল গ্রামের আব্দুল খালিকের ছেলে জুলমান আহমেদ।

সোমবার (৭ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টায় মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া তাঁর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

শশাংক কুমার দত্ত বড়লেখা পৌরসভার বারইগ্রাম এলাকার সতেন্দ্র কুমার দত্তের ছেলে। বড়লেখা পৌরশহরের তার রড-সিমেন্টের একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। গত শুক্রবার (০৪ জুন) সন্ধ্যার দিকে তিনি নিখোঁজ হন। এরপর মুক্তিপণ হিসেবে তার পরিবারের কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে অপহরণকারীরা।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, ব্যবসায়ী শশাংক কুমার দত্ত গত ৪ জুন সন্ধ্যায় সিলেট টিলাগড়স্থ ভাড়াটিয়া বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বড়লেখা ডাকঘরের সামনে থেকে একটি সিএনজি অটোরিকশায় রওয়ানা দেন। তিনি সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলায় পৌঁছে সেখানে সিএনজি অটোরিকশা পরিবর্তন করে অন্য আরেকটি অটোরিকশায় উঠেন। ওই সিএনজি অটোরিকশা যোগে তিনি বারইগ্রাম থেকে সিলেট যাওয়ার পথে সিলেট বিয়ানীবাজার উপজেলার মোল্লাপুর রাস্তায় একটি মাইক্রোবাস শশাংক কুমার দত্তকে বহণকারী অটোরিকশার গতিরোধ করে অপরহরণকারীরা।

পরে তাকে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসটিতে তুলে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। অপহরণকারী চক্র শশাংককে একটি অজ্ঞাতস্থানে রেখে বিভিন্ন ভিওআইপি নম্বর থেকে তার ছোট ভাই সুবোধ কুমার দত্ত এর মোবাইলে ফোনে কল করে মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে।

এরপর সুবোধ কুমার দত্ত বড়লেখা থানা পুলিশকে বিষয়টি জানান। পরে থানা পুলিশের বিশেষ টিম, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে শশাংককে উদ্ধারে নেমে একটানা অভিযান অব্যাহত রাখে।

রোববার (৬ জুন) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) সাদেক কাউছার দস্তগীরের নেতৃত্বে পুলিশ, ডিবি ও র‌্যাবের একটি দল যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউপির বাহাদুরপুর চা বাগানের নির্জন জঙ্গল থেকে অপহৃত ব্যবসায়ী শশাংক কুমার দত্তকে উদ্ধার এবং অপহরণকারী ইসমাইল আহমদ হারুন ও জুলমান আহমদকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। তবে ওই সময় কয়েকজন অপহরণকারী পালিয়ে যায়।

অভিযানে অংশ নেন বড়লেখা থানার ইন চার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রতন চন্দ্র দেবনাথ।

বড়লেখা থানার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার সোমবার (০৭ জুন) দুপুরে বলেন, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে সোপর্দ করা হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত আছে।