ভাবনায় যখন লকডাউন ‘মুহিতুর  রহমান সোহাগ’ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ভাবনায় যখন লকডাউন ‘মুহিতুর  রহমান সোহাগ’

প্রকাশিত: ১১:৫১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৪, ২০২১

ভাবনায় যখন লকডাউন ‘মুহিতুর  রহমান সোহাগ’

সিলেটের দিনকাল ডেক্স:

আগামীকাল ৫ই এপ্রিল থেকে কোভিট-১৯ এর বিস্তার রোধে  সরকার ঘোষিত লকডাউন শুরু হচ্ছে, এটা আমরা সবাই জানি কিন্তু কথা হচ্ছে  এর কার্যকারিতা নিয়ে, সাধারণ মানুষ এটি নিয়ে কি ভাবছে? প্রশাসন এটিকে  বাস্তবায়ন করতে কতটা প্রস্তুত? ২০২০ এ সারাদেশে লকডাউন ঘোষণার পর আমরা যে চিত্র দেখেছিলাম,  এবারো কি তার পুনরাবৃত্তি ঘটবে? লোকজন কি দলবেঁধে শহর ছেড়ে গ্রামের বাড়ি ছুটি কাটাতে রওনা হবে? পর্যটন কেন্দ্র গুলো কি আবারো লোকে লোকারণ্য হবে? গার্মেন্টস কর্মী ও শ্রমিকরা কি তাদের বেতন ভাতা পরিশোধের জন্য আবারো রাজপথে নামবে? তথাকথিত কিছু নামধারী  সমাজকর্মীর ত্রান-সাহায্যের নামে কি প্রকাশ্য চাঁদাবাজি এবারো দেখা যাবে? মাননীয় জনপ্রতিনিধিগনের একটা অংশ এবারো কি বরাদ্দকৃত অর্থ, ত্রাণসামগ্রী নিজেদের পকেটে ও বিছানার নিচে লুকিয়ে রাখবেন? খেটে-খাওয়া দরিদ্র মানুষেরা তাদের জীবিকা নির্বাহের ক্ষেত্রে কী করবে?

এরকম হাজারো প্রশ্ন ও জিজ্ঞাসা যেভাবে সবাইকে ভাবাচ্ছে ঠিক এমনি ভাবে সরকারের গত লকডাউন মধ্যবর্তী কিছু উদ্যোগ আমাদের কিছুটা আশা দেখাচ্ছে, মহামারী বিস্তার রোধে জনসমাগম নিরুৎসাহিত করা, গণপরিবহন এ অর্ধেক আসনে যাত্রী তুলা, তৃণমূল পর্যায়ে বিভিন্ন আর্থিক অনুদান ও ভাতা প্রদান, প্রান্তিক পর্যায়ে বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রম চালো সহ আরো নানান দিক যা জনমনে কিছুটা ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।

দেখুন লকডাউন  আমাদের জনজীবনে  প্রতিবন্ধকতা  তৈরি করে আমাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত করছে এটি যেমন সত্যি ঠিক একি ভাবে বিগত কয়েকদিনের সংক্রমণের হার ও কিন্তু আমাদের জন্য বিশেষ আতংকের কারণ। প্রতিদিনি আমরা সংক্রমণ ও মৃত্যুর ঊর্ধ্বগামী রেকর্ড খাতায় তুলছি।

সরকার যে চিন্তা ভাবনায় করোনার বিস্তার রোধে কাল থেকে লকডাউন বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে তার জন্য বিশেষ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরি,  যেমন,  তার জন্য প্রয়োজন সব মহলে বিশেষ নজরদারি, লকডাউনে যে সকল মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার আশংকা আছে তাদেরকে এর প্রভাব থেকে বাচিয়ে রাখা, লোকজনকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে উৎসাহিত করা ও প্রয়োজনে কঠোরভাবে মানতে বাধ্য করা।

লকডাউন মূলত সরকার কর্তৃক গৃহীত একটি পদক্ষেপ যা আমাদের অন্তত কিছুটা সংক্রমণ হতে বিরত রাখতে সাহায্য করবে। আমরা যদি নিজে সতর্কতা অবলম্বন না করি, স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলি, নিজ থেকেই জনসমাগম এড়িয়ে না চলি তাহলে ক্ষতি টা দিনশেষে আমাদেরি, আমরাই আমাদের প্রিয়জনদের সংক্রমণের ঝুঁকিতে ফেলছি। তাই আসুন এই আপদকালিন সময়ে যথাযথ নিয়মে নিজেরা সুরক্ষিত থাকি এবং নিজের পরিবারের প্রিয়জনদের জীবন ও নিরাপদে রাখি।

 

 

মুহিতুর  রহমান সোহাগ

শিক্ষা  ও সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক

সিলেট নিউ জেনারেশন এন্ড অর্গানাইজেশন।

SR/