ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে সমবায় ভিত্তিক অর্থনীতিক চাকা আরো গতিশীল করতে হবে : এস এম নুনু মিয়া – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে সমবায় ভিত্তিক অর্থনীতিক চাকা আরো গতিশীল করতে হবে : এস এম নুনু মিয়া

প্রকাশিত: ৩:৫৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০১৬

ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে সমবায় ভিত্তিক অর্থনীতিক চাকা আরো গতিশীল করতে হবে : এস এম নুনু মিয়া

somobay-bank-pic-02-10-16সিলেট কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের নব-নির্বাচিত পরিচালক এস.এম নুনু মিয়া ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের পরিচালকের দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন। রোববার সকাল ১১টায় নগরীর জেলরোড পয়েন্টে অবস্থিত কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক কার্যালয়ে এ উপলক্ষে এক সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এস.এম নুনু মিয়া সকালে কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকে পৌছালে ব্যাংকের কর্মকর্তা কর্মচারিরা তাকে ফুল দিয়ে বরন করে নেন। এসময় কর্মকর্তারা এসএম নুনু মিয়ার মতো সৎ, নিষ্ঠাবান ও পরোপকারী মানুষকে পরিচালক পদে গুরুদায়িত্ব অর্পন করায় বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন জানান। দায়িত্বভার গ্রহণ অনুষ্ঠানে সুধীবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশের ৮০ভাগ মানুষ গ্রামে বাস করেন। গ্রামের কৃষক কৃষাণীর অক্লান্ত পরিশ্রম ও আন্তরিকতায় আমরা সোনার ফসল ঘরে তুলি। কিন্তু অতীতে কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকটি অবহেলা আর অসচেতনতার কারণে মুখ থুবড়ে পড়ে বসেছিলো। বর্তমান গনতান্ত্রিক সরকারের দুরদর্শী ও প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীর বাস্তব ও সঠিক চিন্তাধারার প্রেক্ষিতে এসএম নুনু মিয়াকে যে দায়িত্ব প্রদান করেছেন তা একটি ঐতিহাসিক ঘটনা হিসেবে পরিগণিত হবে।
বক্তারা এসএম নুনু মিয়ার সুযোগ্য নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকে আবারো প্রাণ চাঞ্চল্য ফিরে আসবে। বেকার যুবক, মহিলাসহ ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্প প্রতিষ্ঠাকারীদের কার্যক্রমকে গতিশীল করতে এই অনবদ্য ভূমিকা রাখতে পারবে। দায়িত্বভার গ্রহণকালে বিভিন্ন সমবায় সমিতি, সামাজিক সংগঠন, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পর্যায়ে সমবায়ের মাধ্যমে সফলতা অর্জনকারীরা এসএম নুনু মিয়াকে বিপুলভাবে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জাানান। এসব শুভেচ্ছার জবাবে এসএম নুনু মিয়া বলেন, আমার পরম শ্রদ্ধাভাজন বাঙ্গালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে সর্বপ্রথমে শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। পাশাপাশি আমার যে সকল শুভাকাংখী, কর্মী, সমর্থক, সাংবাদিক বন্ধুরা আমাকে যে প্রেরণা সাহস ও নতুন পথ দেখিয়েছেন তাদের ঋণ শোধ করার মতো নয়।
নুনু মিয়া বলেন জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১কে সামনে রেখে দলমত নির্বিশেষে এখন অগ্রগতি অগ্রযাত্রায় শরিক হতে হবে। বিশ্ব বিবেক বার বার মন্তব্য করেছে বাংলাদেশে দলাদলি, দাঙ্গা হাঙ্গামা প্রতিহিংসার চেয়ে উন্নয়ন কর্মকান্ড খুব জরুরী। তাই সমবায়ের মাধ্যমে দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করা এখন জাতির জন্য একটি যুগান্তকারী প্রদেক্ষেপ হিসেবে গন্য হবে। তিনি বলেন সমাজের সুবিধা বঞ্চিত, দরিদ্র, অসহায় ও অনগ্রসর মানুষের ভাগ্যন্নয়নে আমরা আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাবো। জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় তাই ৭১’র মুক্তি যুদ্ধের মতো দারিদ্রের বিরুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়তে হবে। আমরা বিশ্বাস করি সেদিন আর দুরে নয় যেদিন বাঙ্গালী জাতি একটি উন্নত ও সভ্য রাষ্ট্রের মর্যাদা নিয়ে বিশ্বের বুকে আলোর দ্যুতি ছড়াবেন।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের হিসাব রক্ষক মো. আবদুল মালিক, অফিস সহকারী মো. লেচু মিয়া, জেলা অডিট অফিসার উৎপল চক্রবর্তী, জেলা সমবায় অফিস পরিদর্শক মো. আকতার হোসেন, দৈনিক শ্যামল সিলেট এর বার্তা সম্পাদক ও জাতীয় দৈনিক ভোরের দর্পনের সিলেট প্রতিনিধি আবুল মোহাম্মদ, মো. শরীফ উদ্দিন, প্রশিক্ষক সুমা দাস, হিসাব রক্ষক কাজল দেব, মো. আব্দুল মালেক, ক্যাশ সহকারী আয়ুব মিয়া, অফিস সহকারী মো. রাজিব মিয়া, শিউলী সিনহা। মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য আবুল হোসেন,,জেলা ছাত্রলীগ নেতা রাহাত তাফাদার, মো. হারুনুর রশিদ, কৃষকলীগ নেতা আবদুল মুহিত, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহেল আহমদ সাহেল, দিরাই ১নং রফি নগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর চৌধুরী, আবুল কালাম চৌধুরী, রুনা, হাসনা হেনা, অর্থমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী কিশোর ভট্রাচার্য জনি, সফল নারীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রুনা বেগম, নজরুল ইসলাম, হারুন মিয়া, সাদাত, আবদুল মুকিত, একবাল হোসেন, শেখ শহীদুল ইসলাম, আবু বকর, অমর চন্দ্র দাস, আফিকুর রহমান আফিক, নুর মোহাম্মদ বাবু, দ্বীন মোহাম্মদ প্রমুখ।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল