মাঠে সেনাবাহিনী, তবুও মানুষের ঢল

প্রকাশিত: ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৩, ২০২০

মাঠে সেনাবাহিনী, তবুও মানুষের ঢল

অনলাইন ডেস্ক

করোনার সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে প্রশাসন। স্থানীয় প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে আরও সক্রিয় হয়েছে সেনাবাহিনী। তারপরও মানুষকে ঘরে রাখা যাচ্ছে না।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) রাস্তা দেখলে বিশ্বাস হবে না এটা সাধারণ ছুটির সময়, সব নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এ সময়টায় সড়কে এত গাড়ির চাপ দেখে সচেতন নাগরিক হতাশ।

অফিস আদালত বন্ধ, বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও। তবু শত শত গাড়ি রাস্তায়। মোড়ে মোড়ে পুলিশের চেকপোস্ট। কোনও কিছুতেই যেন আটকে রাখা যাচ্ছে না মানুষকে। ক্যামেরার সামনে সবাই মুখে বলছে জরুরি প্রয়োজনের কথা।

সন্দেহ হলেই পুলিশ আটকে রাখছে গাড়ি। করোনা সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে পুলিশের এ অভিযান। গাড়ির চাবি ফেরত নিতে চালকদের দৃশ্যই বলে দেয় কতটা হিমশিম অবস্থা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর।

গুলশান ট্রাফিক জোনের এডিসি এ বি এম জাকির হোসেন বলেন, আইন আছে, সে মোতাবেক আমরা মামলা করছি। প্রত্যেক গাড়ির মালিককে জিজ্ঞাসা করছি। উপযুক্ত জবাব না পেলে ছাড়ছি না।

বিভিন্ন সড়কের পাশাপাশি এ দিন সেনাবাহিনী পাড়া মহল্লায় অভিযান চালায়। সামাজিক দূরত্ব বিঘ্ন হলে সতর্ক করে। বন্ধ করে দেয়া হয় অপ্রয়োজনে খোলা রাখা দোকানপাট। আইন অমান্য করলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি সেনাবাহিনীর।

সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন সাফোয়ান বিন আলমগির বলেন, যারা বাইরে চলাচল করছে তাদের গতিবিধি দেখভালের জন্যই কিন্ত আমরা মাঠে নেমেছি। আগের চেয়ে একটু কঠিন হচ্ছি।