মালয়েশিয়ায় ওআইসির বৈঠকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেয়ার আহ্বান – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

মালয়েশিয়ায় ওআইসির বৈঠকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেয়ার আহ্বান

প্রকাশিত: ১০:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০১৭

মালয়েশিয়ায় ওআইসির বৈঠকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেয়ার আহ্বান

মালয়েশিয়া প্রতিনিধিঃ রোহিঙ্গাদের বর্তমান পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইসলামী সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)। সংস্থাটি রাখাইন রাজ্যে এ সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর সহিংসতা ও বৈষম্য বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্বসহ মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দেয়ারও দাবি জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে ওআইসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বিশেষ বৈঠকে এ আহ্বান জানানো হয়। ৫৭ জাতির ওআইসির অনেক দেশ জাতিসংঘ ও মানবাধিকার কাউন্সিলের মাধ্যমে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছে। ওআইসির সদস্য দেশগুলো ঐকমত্যে পৌঁছেছে যে, রাখাইন মুসলমানদের নিয়ে সংকট শুধু কোনো মানবিক সংকট নয়; বরং এটি একটি মানবাধিকারের ইস্যু। ফলে মানবাধিকারের পরিপ্রেক্ষিতেই এর সমাধান করতে হবে।

ওআইসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের উদ্বোধন করে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা সংখ্যালঘু মুসলমানদের দমন-পীড়ন অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের অব্যাহত দুর্দশায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করতে পারে না। তিনি রোহিঙ্গা মুসলমানদের মৌলিক অধিকার অস্বীকার, তাদের ওপর নিষ্ঠুরতা ও সহিংসতা অবসানের জোরালো দাবি জানান।

বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। বৈঠকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রাখাইন রাজ্যে অস্থিরতায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে রাখাইন রাজ্যে অবিলম্বে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনা এবং পুনর্বাসন ও পুনঃনির্মাণের দাবি জানান। তিনি রোহিঙ্গাদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করে জরুরি ভিত্তিতে তাদের ফিরিয়ে নিতে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানান। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রোহিঙ্গা সমস্যার দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে ওআইসির কার্যক্রম অব্যাহত রাখারও আহ্বান জানান।

নাজিব রাজাক বলেন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার গ্রুপ যদি ঘটতে যাওয়া বিপর্যয় বন্ধে কিছু না করে তা হবে অসম্মানজনক। ওআইসি সদস্য দেশগুলোর উদ্দেশে তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা যে মানবিক ট্র্যাজেডিতে ভুগছেন তাদের জন্যে আমরা কী করতে পারি এখন আমাদের সবার সেটাই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তার জন্যে মালয়েশিয়া এক কোটি রিঙ্গিত (২২ লাখ ৫০ হাজার ডলার) মানবিক সাহায্য দেবে।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারে অনেক বেশি মানুষ তাদের জীবন দিয়েছেন। তাদের ওপর অবর্ণনীয় নিষ্ঠুরতা দেখানো হয়েছে। ওআইসি সদস্য রাষ্ট্র জানে যে, সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএস এ পরিস্থিতির সুযোগ নিতে পারে। এটা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্যও উদ্বেগের বিষয় হবে। কেননা এ হুমকির সীমানা এই অঞ্চলের বাইরেও রয়েছে। রোহিঙ্গা সংকটের কারণে মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী নোবেল বিজয়ী অং সান সুচির সরকারকে বড় ধরনের চাপের মুখে ফেলে দিয়েছে। মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেয়নি।