মায়ের বিরুদ্ধে মেয়েকে হত্যার অভিযোগ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

মায়ের বিরুদ্ধে মেয়েকে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৭:১৪ অপরাহ্ণ, মে ৩, ২০১৬

মায়ের বিরুদ্ধে মেয়েকে হত্যার অভিযোগ

naimসুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলার নিজ গাবী গ্রামে গত সোমবার রাতে নবজাতক কন্যাকে তার মা পুকুরের পানিতে ফেলে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার পুলিশ শিশুটির মাকে গ্রেপ্তার করেছে। তাঁর নাম কুলসুমা আক্তার (৩০)।
মা কুলসুমা আক্তার কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘কিবায় যে কিতা অইছে আমি কইতাম হারি না। আমার অহন কুনুস্তা মন অইতাছে না।’
শিশুটির বাবা শাহাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমরার সংসারও কুনু অভাব নাই। বউ কের লাইগ্যা যে এই ঘডনা ঘডাইল বুজতাম ফারতাছি না। মাথা খারাপ না অইলে কী কুনু মা এই কাম করতাম ফারে।’
এলাকাবাসী, শিশুটির পরিবার ও থানা-পুলিশ সূত্র জানায়, আট-নয় বছর আগে নিজ গাবী গ্রামের শাহাজুল মিয়ার সঙ্গে কুলসুমা আক্তারের বিয়ে হয়। শাহাজুল ইসলাম কৃষিকাজ করেন। তাঁদের সুমাইয়া আক্তার (৫) ও শরীফা আক্তার (২) নামের দুটি মেয়ে রয়েছে। শনিবার রাতে কুলসুমা আক্তার কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। তিনি সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে শিশুটিকে বাড়ির পাশের পুকুরের পানিতে ফেলে দেন। পরিবারের লোকজন ও প্রতিবেশীরা শিশুটিকে খোঁজাখুঁজি করে কোথাও না পেয়ে পুলিশকে জানান। গতকাল বেলা পৌনে দুইটার দিকে পুলিশ শিশুটির পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে। একপর্যায়ে কুলসুমা শিশুটিকে পুকুরে ফেলে দেওয়ার কথা স্বীকার করেন। তাঁর কথামতো পুলিশ জেলেদের সহায়তায় বেলা দুইটার দিকে পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করে।
ধরমপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম কিবরিয়া বলেন, এ ঘটনায় কুলসুমার স্বামী হত্যা মামলা করেছেন। কুলসুমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা চলছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সুনামগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল