মে মাসের পর সর্বনিম্ন মৃত্যু ও শনাক্ত – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

মে মাসের পর সর্বনিম্ন মৃত্যু ও শনাক্ত

প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

মে মাসের পর সর্বনিম্ন মৃত্যু ও শনাক্ত

 

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ও শনাক্তের হার কমেছে। সেইসঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ও মৃত্যু গত প্রায় চার মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৪ জন। এর আগে ২৭ মে একদিনে ২২ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদফতর। সেই হিসাবে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু প্রায় চার মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ১৪৪ জন। এর আগে গত ২২ মে এক হাজার ২৮ জন শনাক্ত হওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। সেই হিসাবে করোনায় দৈনিক শনাক্তও গত চার মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন।

আজ তৃতীয় দিনের মতো করোনায় দৈনিক রোগী শনাক্তের হার রয়েছে পাঁচ এর নিচে। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার চার দশমিক ৬১ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাবিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৪ জনকে নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত মারা গেলেন ২৭ হাজার ৩৩৭ জন। নতুন শনাক্ত এক হাজার ১৪৪ জনকে নিয়ে মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৪৮ হাজার ৩২০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৬৫৩ জন। তাদের নিয়ে দেশে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লাখ সাত হাজার ৭৮৯ জন।

এতে বলা হয়, দেশে এখন পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ২১ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৩৮ শতাংশ এবং মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২৪ হাজার ৮৬৮টি আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৪ হাজার ৮২০টি। দেশে এখন পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৯৫ লাখ ৫১ হাজার ৯৭০টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৭০ লাখ ৪৬ হাজার ৭০৭টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৫ লাখ পাঁচ হাজার ২৬৩টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৪ জনের মধ্যে পুরুষ ১০ জন আর নারী ১৪ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৫৬৬ জন এবং নারী ৯ হাজার ৭৭১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৪ জনের মধ্যে বয়স বিবেচনায় ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে রয়েছেন চার জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে দুই জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুই জন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুই জন।

মারা যাওয়াদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ১১ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ছয় জন, খুলনা ও সিলেট বিভাগের তিন জন করে এবং রংপুর বিভাগের একজন ।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, ২৪ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ১৯ জন এবং বেসরকারি হাসপাতালে পাঁচ জন।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল