মোস্তাফিজ আজ খেলবেন? – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

মোস্তাফিজ আজ খেলবেন?

প্রকাশিত: ৩:৩৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০১৮

মোস্তাফিজ আজ খেলবেন?

আইপিএলের গত মৌসুমটা ভুলে গেলেই বাঁচেন মোস্তাফিজুর রহমান। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলেছিলেন মাত্র একটি ম্যাচ। তিনি যে ফর্মে নেই, হায়দরাবাদ কর্তৃপক্ষ বুঝে গিয়েছিল সেদিনই। একাদশ থেকে বাদ পড়লেন। আফগানিস্তানের তরুণ লেগ স্পিনার রশিদ খানের পারফরম্যান্স এতই ভালো হলো, মোস্তাফিজ আর ফিরতেই পারলেন না প্রথম একাদশে!

অথচ ২০১৬ সালে কী অসাধারণ এক আইপিএলই না কাটিয়েছিলেন বাংলাদেশের এই বাঁহাতি পেসার! ১৬ ম্যাচে নিয়েছিলেন ১৭ উইকেট। আইপিএলে প্রথম বিদেশি ক্রিকেটার হিসেবে পেয়েছিলেন ‘সেরা উদীয়মান’ ক্রিকেটারের পুরস্কার। সর্বোচ্চ উইকেট-শিকারিদের তালিকায় ছিলেন পাঁচ নম্বরে। মোট কথা, প্রথম আবির্ভাবেই সানরাইজার্স হায়দরাবাদের শিরোপা জয়ে রেখেছিলেন দারুণ ভূমিকা।

এবার তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে। গত বছরের বাজে পারফরম্যান্সের পর মুম্বাই তাঁকে ২ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কিনেই সবাইকে চমকে দিয়েছিল। চমকে গিয়েছিলেন মোস্তাফিজ নিজেও। তবে জাতীয় দলের হয়ে শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফিতে ৫ ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়ে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিতটা দিয়েই রেখেছেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, মুম্বাইয়ের জার্সিতে মোস্তাফিজ কি এবার নিয়মিত খেলার সুযোগ পাবেন?

মুম্বাইয়ে পা রাখার পর থেকেই বাংলাদেশের এই তারকাকে নিয়ে হচ্ছে মাতামাতি। সামাজিক যোগাযোগের প্ল্যাটফর্মগুলো অনুসরণ করছে তাঁকে। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, মুম্বাই এবার কেবল ডাগ আউট গরম করার জন্যই তাঁকে দলে টানেনি। কিছু ম্যাচে অবশ্যই তাঁকে খেলানো হবে। বাকিটা নির্ভর করছে তাঁর নিজের ওপরই।

২০১৬ সালে সানরাইজার্স তাঁকে সুযোগ দিয়েছিল, প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম করতে না পারলে কি আর ১৬টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেতেন? মুম্বাইয়ে তাঁকে পারফরম করেই একাদশে সুযোগ করে নিতে হবে। সে হিসাবে হায়দরাবাদের তুলনায় মুম্বাইয়ের মোস্তাফিজকে মুখোমুখি হতে হবে আরও অনেক বেশি কঠিন পরীক্ষার।

আজ চেন্নাই সুপারকিংসের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের আইপিএল অভিযাত্রা শুরু করবে মুম্বাই। প্রতিযোগিতা শুরুর দিনই তাই সম্ভাবনা থাকছে মোস্তাফিজের মাঠে নামার। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর আগাম বিশ্লেষণ বিবেচনায় নিলে মোস্তাফিজের কিন্তু আজ খেলার সম্ভাবনা আছে ভালোই। ইএসপিএন ক্রিকইনফো কিংবা টাইমস অব ইন্ডিয়া মুম্বাইয়ের যে সম্ভাব্য খেলোয়াড় তালিকা দিয়েছে, তাতে মোস্তাফিজ আছেন।

মুম্বাইয়ের পেস আক্রমণের নেতৃত্বে থাকবেন জাসপ্রীত বুমরা। প্রতি ম্যাচেই বুমরার চারটি ওভারের দিকেই মুম্বাই তাকিয়ে থাকবে। বুমরার পাশাপাশি নিলামে মোস্তাফিজুর রহমান, জেসন বেহেরেনডরফ ও প্যাট কামিন্সকে নিয়ে এবারের আইপিএলের অন্যতম সেরা পেস বোলিং আক্রমণ ছিল মুম্বাইয়ের। পরে বেহেরেনডরফ বাদ পড়েছেন চোটের কারণে। বুমরার সঙ্গী হতে মোস্তাফিজকে তাই লড়াই করতে হবে কামিন্সের সঙ্গেই। তবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে কার্যকরী বোলার হিসেবে মোস্তাফিজের যে সুনাম, সে ব্যাপারটা যে মুম্বাইয়ের মাথায় আছে, তা বোঝাই যাচ্ছে।

মোস্তাফিজকে দারুণ পছন্দ মুম্বাই কোচ মাহেলা জয়াবর্ধনের। এবারের আইপিএলে মুম্বাই যে মোস্তাফিজকে দলে নিয়েছে, সে জন্য এই লঙ্কান গ্রেটের ভূমিকা যে সবচেয়ে বেশি, সেটা প্রথম আলোকে বলেছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও নির্বাচক হাবিবুল বাশার। জয়াবর্ধনে মোস্তাফিজের যে জিনিসটা সবচেয়ে পছন্দ করেন, সেটা হচ্ছে স্লোয়ার ডেলিভারিতে একেবারে নিখুঁতভাবে কাটার দিতে পারার ক্ষমতা। তবে এবার মুম্বাইয়ের হয়ে এই ক্ষমতাই যে মোস্তাফিজকে প্রথম একাদশে নিয়মিত করবে—এমন গ্যারান্টি কেউ দিতে পারছেন না।

তবে তারপরও আশা, মোস্তাফিজ অন্তত শুরুর দিকে কিছু ম্যাচ পাবেন। এরপর তিনি যদি নিজেকে প্রমাণ করতে পারেন, তাহলে হয়তো ২০১৬ সালেরই পুনরাবৃত্তি হবে। মুম্বাইয়ের হয়েও আইপিএল রাঙাবেন বাংলাদেশের তারকা।