মৌলভীবাজারে ভারতের তাবলীগ জামাতের ১২ সদস্য ‘কোয়ারেন্টাইনে’ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

মৌলভীবাজারে ভারতের তাবলীগ জামাতের ১২ সদস্য ‘কোয়ারেন্টাইনে’

প্রকাশিত: ১০:১৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৫, ২০২০

মৌলভীবাজারে ভারতের তাবলীগ জামাতের ১২ সদস্য ‘কোয়ারেন্টাইনে’

স্বপন দেব, মৌলভীবাজার

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় ভারতের তবলীগ জামাতের নিজামউদ্দিনের (সাদ অনুসারী) ১২ সদস্যের একটি দল আটকা পড়েছে। ভারতের হরিয়ানা প্রদেশের ৯জন ও বাংলাদেশের ৩ জন সদস্য রয়েছেন এই জামাতে। রাজনগর থানা পুলিশ তাদের সাথে যোগাযোগ করে কোয়ারেন্টাইন নিয়ম পালনের জন্য বলেছে। সেই সাথে তাবলীগের কোন কার্যক্রম না চালানোর জন্য বলা হয়ৈছে। ভারতের ওই জামাতের সদস্যরা গত ২৪ মার্চ থেকে ফতেপুর ইউনিয়নের হামিদপুর আফতাবনগর মাদ্রাসা মসজিদে অবস্থান করছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভারতের হযরত নিজামুদ্দিন মারকাজ থেকে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ৯ সদস্যের একটি জামাত বাংলাদেশে আসে। তাদের সাথে বাংলাদেশ আরও তিন সদস্যকে যুক্ত করে ১২ জনের একটি জামাত গত মার্চের শেষ দিকে মৌলভীবাজার জেলার রাজনগরে আসে।
রাজনগরের বিভিন্ন জায়গায় তাবলিগী কার্যক্রম চালিয়ে গত ২৪ মার্চ উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের হামিদপুর এলাকায় যায়।

সারাদেশে সরকার লকডাউন ঘোষণা করলে ভারতের ওই জামাটি সেখানে আটকা পড়ে। খবর পেয়ে রাজনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের খোঁজ-খবর নেয়। বিদেশী সদস্যদের ছবি পাসপোর্ট নাম্বার সংগ্রহ করে এবং তাদেরকে কোয়ারেন্টাইন এর নিয়ম পালনের জন্য বলা হয়েছে। এছাড়াও তাবলীগী কার্যক্রম বন্ধ রেখে মাদ্রাসার এরিয়ার বাহিরে না যাওয়ার জন্যও বলেছে রাজনগর থানার পুলিশ।

এদিকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ মসজিদে তাদেরকে অবস্থান এবং পর্দাটা নিয়ে নামাজের জন্য পৃথক ব্যবস্থা করার জন্য বলা হয়েছে। এবারে মৌলভীবাজার জেলা আমীর হিসেবে পরিচয়দানকারী মাস্টার আব্দুল হাই এর সাথেও যোগাযোগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে রাজনগর থানার পুলিশ।

রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাশিম বলেন, পুলিশ ভারতের ওই জামাতের খবর পেয়ে তাদের সাথে যোগাযোগ করেছে। আমরা এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট করেছি। প্রত্যেকের পাসপোর্ট নাম্বার ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদেরকে কোয়ারান্টিনের নিয়ম পালনের জন্য বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রাজনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) উর্মি রায় বলেন বিষয়টি আমার জানা নেই তবে আমি এ ব্যাপারে খোঁজখবর নিচ্ছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল