যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়ার মৃত্যুতে শ্রদ্ধাঞ্জলী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়ার মৃত্যুতে শ্রদ্ধাঞ্জলী

প্রকাশিত: ৮:২৪ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২, ২০১৬

যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়ার মৃত্যুতে শ্রদ্ধাঞ্জলী

dsc_1370-copy-jpg00০২ নভেম্বর ২০১৬, বুধবার: বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ইউনিট কমান্ডের উদ্যোগে জিন্দাবাজারস্থ কার্যালয়ে সাবেক জেলা কমান্ডার ও বর্তমান কার্যকরী কমিটির সদস্য এবং সাবেক কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সহ সাংগঠনিক কমান্ডার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. বাদশা মিয়ার মৃত্যুতে শ্রদ্ধাঞ্জলী প্রদান করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা ইউনিট কমান্ডের কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্ত্তী জুয়েল, ডেপুটি কমান্ডার মো. আকরাম আলী, অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, সহকারী কমান্ডার মো.আব্দুল হক, হাজী সাইফুল হোসেন, সুবল চন্দ্র পাল, মো. আলী আমজাদ, মো. আব্দুল আহাদ, যুদ্ধাহত আতিক আহমদ চৌধুরী, সুরুজ আলী, মো. সেলিম আহমদ ফলিক, মো. আব্দুল হক, নির্মলেন্দু কুমার পাল, মো. হিরণ মিয়া, আব্দুস সালাম, সুবেদার আফতাব উদ্দিন, সাবেক জেলা কমান্ডার মো. লুৎফুর রহমান লেবু, সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার তোতা মিয়া, মহানগর শ্রমিক লীগ নেতা জাফর আহমদ চৌধুরী, মহানগর ইউনিট কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল খালিক, সহকারী কমান্ডার চুনু মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাছিত, অবসরপ্রাপ্ত সুবেদার মেজর রফিক উদ্দিন, সদর উপজেলা কমান্ডার ইরশাদ আলী, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কমান্ডার কুটি মিয়া, সহকারী কমান্ডার খুর্শিদ আলী, ডেপুটি কমান্ডার নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ডেপুটি কমান্ডার আলকাছ মিয়া, সংসদের অফিস সেক্রেটারী নিজাম উদ্দিন প্রমুখ। যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. বাদশা মিয়ার মরদেহ (০২ নভেম্বর) বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় জিন্দাবাজার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে জেলা কমান্ডের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পাশাপাশি বিভিন্ন উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এসময় জেলা কমান্ডার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. বাদশা মিয়ার মৃত্যুতে আমরা আমাদের একজন সহযোদ্ধাকে হারিয়েছি, পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে তিনি তার মৃত্যুর আগ মুহুর্ত পর্যন্ত কাজ করে গেছেন। আমরা তাহার অবদানকে কখনো ভুলতে পারবো না। জাতি আজ একজন বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানকে হারিয়েছে। তিনি বাদশার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন ও জেলা কমান্ডের পক্ষ থেকে ৩ দিনের শোক ঘোষণা করা হয়। ৩দিনের কর্মসূচীর মধ্যে প্রত্যক উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পতাকা অর্ধ উত্তোলন করা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং শোক সভার আয়োজন করার কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়।
পরিশেষে তাহার রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয় এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়। উল্লেখ্য গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সিলেট পার্কভিউ ক্লিনিকে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৯ছেলে ও ৩ মেয়ে সহ আত্মীয়স্বজন, সহযোদ্ধা রেখে গেছেন।-বিজ্ঞপ্তি