যেখানে দুর্ভোগ সেখানেই আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা অব্যাহত থাকে ….অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন

প্রকাশিত: ৭:৫২ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২২

যেখানে দুর্ভোগ সেখানেই আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা অব্যাহত থাকে ….অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন

সিলনিউজ বিডি ডেস্ক :: সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন বলেছেন, বন্যাপরবর্তী সময়েও অসহায় মানুষদের মাঝে মহানগর আওয়ামী লীগ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। নেতৃবৃন্দ বন্যাকবলিত ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে চাল, ডাল, শুকনো খাবার সহ ত্রাণ সামগ্রী অসহায় মানুষদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন। নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা, আন্তরিকতা, মানবিকতায় বন্যাকালীন সময় থেকে বন্যাপরবর্তী সময়েও অসহায় মানুষদের খুব বেশি সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় নি। যেখানেই দুর্ভোগ সেখানেই আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ কাজ করে যাচ্ছেন। অসহায় মানুষদের খাবারের উপকরণ না থাকলে সেখানে তা পৌঁছে দিচ্ছেন। তিনি বলেন, এটাই হলো আওয়ামী লীগ। জন্মলগ্ন থেকেই আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে থেকে সাহায্য ও সহযোগীতা এবং নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা বিশ্বাস করি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে জনগণের কল্যাণে কাজ করা এবং সামগ্রিক উন্নয়নের ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। কারণ আওয়ামী লীগ হলো জনগণের দল এবং জনগণই আওয়ামী লীগের প্রাণ। জনগণকে সাথে নিয়েই আওয়ামী লীগ এগিয়ে যায় এবং আগামীতেও যাবে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকালে নবগঠিত ৩৯ নং ওয়ার্ডের টুকেরগাঁও,গৌরীপুর ,শাহপুর, পীরপুর সহ অত্র এলাকার আরো কিছু মহল্লার অসহায় মানুষদের মধ্যে মহানগর ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্তৃক খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। বিকেলে তিনি ৩১ নং ওয়ার্ডের নয়াবস্তি এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করেন। গতকাল (২৫ মে) তিনি ২৩ নং ওয়ার্ডের মেন্দিবাগ নয়াপাড়া এলাকায় প্রবাসীদের সহায়তায় অসহায় মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন সাইফুর রহমান খোকন, জাবেদ আহমদ, জুনেদ আহমদ, জব্বার আহমদ পাপ্পু ,নুরুল ইসলাম নুরু, আব্দুস শকুর, মোঃ জুনাইদ কোরাশানী, কাজী আহমদ শিবলী, সুন্দর আলী, মহিউদ্দিন, সালমান আহমদ, মনজুর আহমদ, হাবিব আহমদ, আজির উদ্দিন, প্রভাষক আফজাল হোসেন, আলিম উদ্দিন, আবু হামিদ, মুহিব উদ্দিন সহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল