রাষ্ট্রকে খণ্ডিত করা হচ্ছে : সুলতানা কামাল – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

রাষ্ট্রকে খণ্ডিত করা হচ্ছে : সুলতানা কামাল

প্রকাশিত: ২:২৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০১৬

রাষ্ট্রকে খণ্ডিত করা হচ্ছে : সুলতানা কামাল

sultana kamalরাষ্ট্রকে খণ্ডিত করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মানবাধিকারকর্মী ও তত্ত্বাবধায়ক সসরকারের সাবেক উপদেষ্টা সুলতানা কামাল। এসময় তিনি নিজেদের দায়িত্বটাও সঠিক ভাবে পালনের আহ্বান জানান। বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলাধীন সাহেবগঞ্জ-বাগদা ফার্মের চুক্তিভিত্তিক অধিগ্রহণকৃত জমি মূল উত্তরাধিকারী আদিবাসী ও বাঙালীদের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবীতে এ সভার আয়োজন করে সাহেবগঞ্জ-বাগদা ফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি ও জাতীয় আদিবাসী পরিষদ।

সুলতানা কামাল বলেন, আজকে যারাই রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাচ্ছে তারাই নিজেদের একরকম ভাবে আর সবাইকে আলাদা মনে করে। ফলে সাধারণ মানুষকে রাষ্ট্র থেকে বিচ্ছিন্ন হচ্ছে। এতে মূলত রাষ্ট্রকেই খণ্ডিত করা হচ্ছে যা আইনত আন্যায়। কেননা এই রাষ্ট্র ধসবার। তাই আমাদের নিজ নিজ দায়িত্ব থেকে কাজে নেমে যেতে হবে।

সভায় ঐক্যন্যাপ সভাপতি পঙ্কজ ভট্রাচার্য্য বলেন, আমাদের আদিবাসী সংগ্রামকে দুইভাবে দেখা যেতে পারে। যদি মানবাধিকার সংগ্রাম হিসেবে দেখেন তাহলে এর একটি জায়গার মধ্যে থাকতে হবে। আর যদি আমরা শ্রেণিভেদের দিক দিয়ে দেখি তাহলে সফলতা আসবে। নিজেদের জয়ে সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে। এসময় তিনি, দুটি সফল আন্দোলনের গল্প শুনিয়ে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করেন।

গবেষক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, প্রশাসন তথা সরকার যদি সঠিক ভূমিকা রাখতো তাহলে এই বিষয় নিয়ে আন্দোলনে যেতে হতো না। চুক্তি হয় তা আবার ভাঙ্গা হচ্ছে। আসলে রাষ্ট্র ফোরটোয়েন্টি হয়ে গেছে। আমাদের রাষ্ট্র চুক্তি ও ভঙ্গ দুই-ই করতে দক্ষ। রামপাল, সুন্দরবন বিষয়ে কী হচ্ছে তা তো সবার জানা। ন্যায় সঙ্গত দাবি হওয়া সত্বেও নির্যাতন ও গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।

মানবাধিকারকর্মী খুশী কবির বলেন, স্বাধীন দেশে তাদের নিজেদের জমিতে থাকার অধিকার রয়েছে। তাই তাদের মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। এক্ষেত্রে সরকারকে মুখ্য ভূমিকা রাখতে হবে। সভায় বক্তব্য দেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রুবায়েত ফেরদৌস।

সভায় জানানো হয়, ৩০ জুন থেকে আদিবাসী ও নিরহ বাঙ্গালীরা কিছু জমি দখল নিতে শুরু করেছেন। তবে পুলিশি বাধায় তা থেমে গেছে।

শুরুতে লেখক ও গবেষক পাভেল পার্থ মূল বিষয়ের ওপর প্রবন্ধ তুলে ধরেন। এতে তিনি উল্লেখ করেন, ভূমি বন্চিতদের দাবি মিটিয়ে দেয়া উচিত। এর ফায়সালা রাজনৈতিকভাবেই করতে হবে। এর পাশাপাশি চিনিকলগুলোও চালু থাকা উচিত।