রিজওয়ানের ঝড়ো ইনিংসে পাকিস্তানের জয় – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

রিজওয়ানের ঝড়ো ইনিংসে পাকিস্তানের জয়

প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২২, ২০২০

রিজওয়ানের ঝড়ো ইনিংসে পাকিস্তানের জয়

স্পোর্টস ডেস্ক ::
নিউজিল্যান্ড সফরে টানা দুই ম্যাচে হেরে হোয়াইটওয়াশের শঙ্কায় ছিল পাকিস্তান। মঙ্গলবার সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে মোহাম্মদ রিজওয়ানের ৫৯ বলের ৮৯ রানের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে ৪ উইকেটের দাপুটে জয় পায় সফরকারীরা। এই জয়ে সিরিজে ২-১ পরাজয়ের ব্যবধান কমাল পাকিস্তান।

মঙ্গলবার নেপিয়ারের ম্যাকলেন পার্কে টস জিতে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় পাকিস্তান। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী ‍জুটিতে ৪.৩ ওভারে স্কোর বোর্ডে ৪০ রান যোগ করেন মার্টিন গাপটিল ও টিম সিপার্ট।

এরপর ১৮ রানের ব্যবধানে নিউজিল্যান্ড হারায় মার্টিন গাপটিল (১৯), অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন (১) সিপার্টের উইকেট। সাজঘরে ফেরার আগে ২০ বলে ৩৫ রান করেন তিনি।

চতুর্থ উইকেটে গ্লেন ফিলিপসকে সঙ্গে নিয়ে ৫১ রানের জুটি গড়েন ডেভন কনওয়ে। ২০ বলে ৩১ রান করে ফেরেন ফিলিপস। এরপর একাই লড়াই করে যান কনওয়ে। ইনিংস শেষ হওয়ার তিন বল আগে হারিস রউফের শিকারে পরিনত হন তিনি। তার আগে ৪৫ বলে সাত চার ও এক ছক্কায় ৬৩ রান করেন ডেভন কনওয়ে। তার ফিফটিতে ভর করেই ৭ উইকেটে ১৭৩ রান তুলতে সক্ষম হয় নিউজিল্যান্ড।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৫.২ ওভারে ৪০ রানের জুটি গড়ে ফেরেন ওপেনার হায়দার আলী(১১)। তিনে ব্যাটিংয়ে নামা মোহাম্মদ হাফিজকে সঙ্গে নিয়ে ফের ৭২ রানের জুটি গড়েন ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। আগের ম্যাচে ৫৭ বলে ১০ চার ও পাঁচটি ছক্কায় অপরাজিত ৯৯ রান করা হাফিজ, এদিন ফেরেন ২৯ বলে ৪১ রান করে।

হাফিজ আউট হওয়ার পর পাকিস্তানের আর কোনো ব্যাটসম্যান রিজওয়ানকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি। দলের হোয়াইটওয়াশ এড়াতে একাই লড়াই করে যান তিনি।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল মাত্র ৪ রান। জেমিসনের করা ওভারের প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে প্রান্ত বদল করেন ইফতেখার আহমেদ। পরের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন রিজওয়ান। তার আগে ৫৯ বলে ১০ চার ও তিন ছক্কায় ৮৯ রান করেন তিনি। ওভারের পরের বলে কোনো রান নিতে পারেননি ইফতেখার। কিন্তু চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করে হুসেইন তালাতকে সঙ্গে নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
নিউজিল্যান্ড: ২০ ওভারে: ১৭৩/৭ (ডেভন কনওয়ে ৬৩, গ্লেন ফিলিপস ৩১; ফাহিম আশরাফ ৩/২০, হারিস রউফ ২/৪৪, শাহীন শাহ আফ্রিদি ২/৪৩)।

পাকিস্তান: ১৯.৪ ওভারে ১৭৭/৬ (রিজওয়ান ৮৯, হাফিজ ৪১, ইফতেখার ১৪*;টিম সাউদি ২/২৫, স্কট কুগলিন ২/৪০)।

ফল: পাকিস্তান ৪ উইকেটে জয়ী।