র‌্যাগিং: শাবির সিইই বিভাগের দুই ছাত্র আজীবনের জন্য বহিষ্কার , ১৯ জনকে শাস্তি – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

র‌্যাগিং: শাবির সিইই বিভাগের দুই ছাত্র আজীবনের জন্য বহিষ্কার , ১৯ জনকে শাস্তি

প্রকাশিত: ৭:২১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৮

র‌্যাগিং: শাবির সিইই বিভাগের দুই ছাত্র আজীবনের জন্য বহিষ্কার , ১৯ জনকে শাস্তি

শাবি প্রতিনিধি:: সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) “সিভিল এন্ড ইনভায়রন মেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সিনিয়র শিক্ষার্থী দ্বারা ছয় নবীন শিক্ষার্থীকে অর্ধনগ্ন করে রাতভর র্যাগিং দেওয়ার অভিযোগে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের দুই শিক্ষার্থী আশিক আহমেদ হিমেল ও মোঃ হামিদুর রহমান রঙ্গনকে আজীবন বহিষ্কার করা সহ ২১ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এছাড়াও বিগত ২০১৬-১৭ সেশনের ভর্তি পরীক্ষার জালিয়াতির ঘটনায় “ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং” বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের আল-আমিন এবং সহপাঠীকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের রাসেল পারভেজকে আজীবন বহিষ্কার করা হয়।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে ২০৭ তম সিন্ডিকেট সভায় শৃঙ্খলা কমিটির সুপারিশক্রমে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এদের মধ্যে সিভিল এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দুইজন মোঃ মাহমুদুল হাসান ও শাহ রিয়াজ জামানকে  ২ বছরের জন্য বহিষ্কারসহ ১০ হাজার টাকা জরিমানা, ইসতিয়াক আহমেদকে এক বছরের জন্য বহিষ্কারসহ ১০ হাজার টাকা জরিমানা, ৫জন (বাবলু মার্মা, আদ্রী দাস, মোঃ আবু রেদোয়ান খান,উমর আলম সরকার, পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের রনি সরকারকে) ৬ হাজার টাকা জরিমানা ও সতর্কীকরণ, ৯ জন (আহমেদ হাসিব, দেবাশীস বসু, মাহবুব ইব্রাহিম, মোহাম্মদ শাহিদুল আলম, মোহাম্মদ আল-আমীন, দীপ্ত তরু, আশিকুল এনাম, রাইসুল বারি সিফাত, মোঃ সজীবুর রহমান) কে ৩হাজার টাকা জরিমানা ও বাকী দুইজন (নাজমুস সাকীব ও মোঃ শফিকুল ইসলাম সতর্কীকরণ করা হয়।

এদিকে সিন্ডিকেট সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সিভিল এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যারয়ের বঙ্গবন্ধু চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস বন্ধ করে দেয়। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীসহ, শিক্ষক, কর্মকর্তারা দুর্ভোগে পড়েন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ছয় নবীন শিক্ষার্থীকে অর্ধনগ্ন করে র ্যাগিং এর পাশাপাশি রাতভর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন একই বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের ১৯ জন ও পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের এক শিক্ষার্থী। এ ঘটনা কাউকে জানালে পরবর্তীতে পুনরায় মেসে ডেকে আনা হবে বলে হুমকিও দেন শিক্ষার্থীরা। বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হলে পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে।