আতঙ্কে আছেন যুক্তরাজ্য বিএনপি’র নেতা কর্মীরা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আতঙ্কে আছেন যুক্তরাজ্য বিএনপি’র নেতা কর্মীরা

প্রকাশিত: ১:৪০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭

আতঙ্কে আছেন যুক্তরাজ্য বিএনপি’র নেতা কর্মীরা

লন্ডন প্রতিনিধি: বাংলাদেশের বাহিরে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) এর সব চাইতে শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে যুক্তরাজ্য বিএনপি নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা কর্মীরা মনে করেন, দেশের বাহিরে সরকার বিরুধী আন্দোলনে সবচাইতে অগ্রনি ভুমিকা পালন করছে যুক্তরাজ্য বিএনপি। যুক্তরাজ্য বিএনপি তার অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন গুলকে নিয়ে সরকার বিরুধী আন্দোলনের একটি শক্তিশালী বলয় সৃষ্টি করেছে বলে সিনিয়র নেতাদের অভিমত।
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যতবারই যুক্তরাজ্য সফর করেন, ততবারই তিনি স্হানীয় বিএনপি নেতা কর্মীদের তুমুল প্রতিরোধের শিকার হন।বহুল আলোচিত ও সমালোচিত ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনের পর যখনই তিনি যুক্তরাজ্যে আসেন,তখনই তাকে এবং তার সফর সংগীদেরকে লান্চনার শিকার হতে হয়েছে যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা কর্মীদের কাছে।
তারা তার হোটেলে সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও কালো পতাকা প্রদর্শন করে, সেই সাথে পচা ডিম ও পানির বোতল নিক্ষেপ করেছে। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী এতে বিভ্রতবোধ হয়েছেন এবং নিজেকে অপমানিত বোধ করেছেন।
সরকারের গোপন সূএ জানায় যে, যুক্তরাজ্যে বিএনপি, যুবদল, স্বেচছাসেবক দল ও ছাএদল সহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের যে সকল নেতা কর্মীরা সরকারের বিরুদ্ধে তৎপরতা চালাচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে যতাযত ব্যবস্হা নিতে সরকারের উচ্চ মহল থেকে আইন শৃংখলা বাহীনিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
যুক্তরাজ্যে অবস্হিত বাংলাদেশ হাইকমিশন ও স্হানীয় আওয়ামিলীগ নেতাদের সহায়তায় সরকারের গোয়েন্দা সংস্হা স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ) ও ডিজিএফআই বিএনপি নেতা কর্মীদের একটি তালিকা তৈরী করেছে। এ তালিকা তৈরী করতে গোয়েন্দা সংস্হাগুলো বিভিন্ন নিউজ পেপার ও সোসিয়াল মিডিয়া থেকে ছবি ও ভিডিও লিন্ক সংগ্রহ করেছে বলে সূএ জানিয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার উদ্বেগের অংশ হিসাবে, বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী (এসএসএফ) এবং ডিজিএফআই কর্তৃক উপস্থাপিত রিপোর্টের ভিত্তিতে এ তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে।
সূত্র জানায়, এই তালিকাতে স্হানীয় বিএনপি’র শত শত নেতা ও কর্মীদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে শেখ হাসিনার আতংক হিসেবে পরিচিত যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক, সাধারণ সম্পাদক কায়সার এম আহমেদ, নাসরুল্লাহ খান জুনায়েদ, পারভেজ মালিক, শারফারাজ শরফু, আবদুল হামিদ, শহীদুল ইসলাম মামুন, মুজিবুর রহমান মুজিব, নাসিম হোসেন, সাদিক মিয়া, খছরুজ্জামান খসরু, আক্তার হোসেন, আবেদ রাজা, খালেদ চৌধুরী, মামুন ইসলাম, মিসবাহ বিএস চৌধরী, স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি নাসির আহমেদ শাহীন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, লাকি আহমেদ, জাহেদ তালুকদার, জাহাঙ্গীর আলম শিমু, আজিম উদ্দিন, শামীম উদ্দিন, কামাল উদ্দিন, শরিফুল ইসলাম, ডালিয়া লাকুরিয়া, অন্জনা আলম, বিএনপি নেতা শরীফুজ্জামান তপন, শাহজাহান আহমেদ, আবদুল মতিন, মো কয়সর আলম, যুবদল নেতা রহিম উদ্দিন, আফজাল হোসেন, নুরুল আলী, সুমেদ খান, লায়েক মোস্তফা, রাহাত মিয়া সহ আরো অনেকে।
এদিকে, এই তালিকা তৈরীর খবরে যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা কর্মীদের মাঝে এক আজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে।বাঙ্গালী অধ্যাসীত লন্ডনের হোয়াইট চ্যাপেল এলাকায় কয়েকজন বিএনপি নেতা কর্মীদের সাথে আলাপকালে জানা যায়, তারা নিজেদের নিয়ে যতটা না আতঙ্কিত, তার চেয়ে বেশি চিন্তিত বাংলাদেশে অবস্হানকারী তাদের মা, বাবা, ভাই, বোন ও আতীয় স্বজনদের নিয়ে। তারা বলেন এই সরকার যুক্তরাজ্যে তাদেরকে কিছু না করতে পেরে দেশে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের আত্বীয় স্বজনদেরকে হয়রানী করছে। নাম প্রকাশ না করে কয়েকজন বলেন পুলিশের সহায়তায় ছাএলীগের ক্যাডার বাহীনি তাদের ঘর ও ব্যবসা প্রতিস্ঠানে হামলা ও লুটপাট করছে, দেশে ন্যায় বিচার বলতে কিছুই নেই, তবে এই অপশাসনের অবসান একদিন এই বাংলার মাটিতে হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল