শনিবার সিলেটের ১৪০৬টি ‘স্বপ্ননীড়’র দরজা খুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

শনিবার সিলেটের ১৪০৬টি ‘স্বপ্ননীড়’র দরজা খুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৩:১৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

শনিবার সিলেটের ১৪০৬টি ‘স্বপ্ননীড়’র দরজা খুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :: মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন, ঘরহীন মানুষদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিতে দেশজুড়ে আশ্রয়ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সরকার। এই প্রকল্পের অংশ হিসেবে সিলেটে ৪ হাজারেরও বেশি ‘স্বপ্ননীড়’ নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে ১৪০৬টি ঘর প্রস্তুত করা হয়েছে। বাকি ঘরগুলোও নির্মাণের প্রক্রিয়া চলমান।

ইতোমধ্যে নির্মিত ১৪০৬টি ঘর উপকারভোগীদের সমঝিয়ে দেয়া হয়েছে। আগামী শনিবার (২৩ জানুয়ারি) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এগুলোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন খোদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিষয়টি এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে জানিয়েছেন সিলেট জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে এ প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম জানান, সিলেটে ভূমিহীন-ঘরহীন ‘ক শ্রেণির’ ৪১৭৮জন মানুষকে মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিতে ‘স্বপ্ননীড়’ তৈরি করে দিচ্ছে সরকার। ইতোমধ্যে ১৪০৬টি ঘর প্রস্তুত করে উপকারভোগীদের সমঝিয়ে দেয়া হয়েছে। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এগুলোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন সকাল সাড়ে ৯টায় সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে এর উদ্বোধন অনুষ্ঠান হবে।

এম কাজী এমদাদুল ইসলাম আরও জানান, প্রতিটি ঘর নির্মাণে খরচ হচ্ছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। প্রতিটি ঘরে দুটি কক্ষ, একটি রান্নাঘর ও একটি বাথরুম রাখা হচ্ছে।

সিলেট জেলার মধ্যে সিলেট সদরে ১৪৪টি, দক্ষিণ সুরমায় ১২০টি, বিশ্বনাথে ৬৬৯টি, ওসমানীনগরে ৫৩৩টি, বালাগঞ্জে ৮৭৫টি, বিয়ানীবাজারে ১০৪টি, গোলাপগঞ্জে ২০০টি, ফেঞ্চুগঞ্জে ১৩০টি, গোয়াইনঘাটে ৫০০টি, কানাইঘাটে ১৯৩টি, জৈন্তাপুরে ৩৩০টি, জকিগঞ্জে ১৩০টি এবং কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ২৫০টি ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার।