শফিক’র নেতৃত্বে জাহাঙ্গীরনগরে টিলা কাটা ও বালু উত্তোলনের মহোৎসব! – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

শফিক’র নেতৃত্বে জাহাঙ্গীরনগরে টিলা কাটা ও বালু উত্তোলনের মহোৎসব!

প্রকাশিত: ১০:২০ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০১৬

শফিক’র নেতৃত্বে জাহাঙ্গীরনগরে  টিলা কাটা ও বালু উত্তোলনের মহোৎসব!

01সিলেট সদর উপজেলার ৬নং টুকের বাজার ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য শফিক মেম্বারে নেতৃত্বে পাঠানটুলার জাহাঙ্গীরনগর এলাকার ৮টি স্থানে চলছে টিলাকাটা ও ছড়া থেকে বালু উত্তোলন।
সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, জাহাঙ্গীর নগরের ৮টি স্থান থেকে টিলাকাটা ও ছড়া থেকে বালু উত্তলন করেন শফিক বাহিনীর লোকজন। সব উত্তোলন কেন্দ্র নিয়ন্ত্রন করেন শফিক মেম্বার নিজে এবং তিনি নিজে লেবার দিয়ে টিলাকেটে ও বালু উত্তলন করেন আলী বাহার চা মিলের পিছন থেকে তার বাহিনীর সদস্য সজিব খান পংকির বাড়ীর নিচ থেকে, ফজলু মিয়া জাহাঙ্গীর নগর কালভ্যাটের নিচে, রাজ্জাক খান জাহাঙ্গীরনগর মার্কেটের পিছন থেকে, রুমন মিয়া তিন রাস্তার শহিদের বাড়ির মুখ থেকে টিলাকেটে মাটি ও ছড়া থেকে বালু উত্তলন করছেন।
সরজমিনে গেলে জাহাঙ্গীরনগর এলাকার বাসিন্দা লাল মিয়া জানান, পরিবেশ রক্ষায় টিলাকাটা বন্ধ করতে আমরা প্রশাসনের বিভিন্ন স্থরে যোগাযোগ করেছি প্রশাসন আমাদের কোন ধরনের সহযোগিতা করছেন না এমন কি সরজমিনে তদন্ত ও করেন নি।
জাহাঙ্গীরনগরের আরেক বাসিন্দা আইনুল আহমদ জানান, শফিক ও তার বাহিনীর সদস্যরা বালু ও টিলাকাটার মাটি বিক্রি করেন রাস্তা মেরামতের কাজের জন্য এই মাটি ও বালু ব্যবহার করে মেরামত করার পর বৃষ্টি পানিতে সেই বালু ছড়াতে বিলিন হয়ে যায়।
আরেক বাসিন্দা খোদেজা বেগম বলেন এলাকার পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে প্রশাসনে যোগাযোগ করে কোন কাজ হয় নি আপনাদের লেখনীর মধ্যে দিয়ে যদি এলাকার পরিবেশ রক্ষা হয় আমরা উপক্রিত হব।
স্থানীয় সূত্রে আরো জানা যায়, শফিক মেম্বার রাজনৈতিক দলের প্রভাবশালী নেতাদের ব্যবহার করে প্রশাসনকে নিয়ন্ত্রন করে এই সকল ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। তিনি নিজে তার শালক রাজ্জাক খানের বাসায় বসে সব কলকাটি নাড়াচড়া করেন। শফিক মেম্বার টাকার বিনিময়ে রাতের আধারে টিলাকেটে পরিবেশ বিনষ্ট করছেন এবং টিলাকাটার ঠিকাদারী রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল