শাবিতে আন্দোলনে ভিসি কে মদদ দেয়ায় জনসম্মুখে দল প্রত্যাহার করলেন সাবেক কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন (ভিডিও)

প্রকাশিত: ৮:০৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২২

শাবিতে আন্দোলনে ভিসি কে মদদ দেয়ায় জনসম্মুখে দল প্রত্যাহার করলেন সাবেক কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন (ভিডিও)

অজয় বৈদ্য অন্তর:: সাবেক কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন বললেন, ৩৬০ আউলিয়ার স্মৃতিবিজড়ীত পূন্যভূমি সিলেটের মাটিতে কোনো দুষ্কৃতিকারী মাথাছাড়া দিয়ে উঠুক আমরা কখনো চাই না। আজ ৯দিন অতিবাহিত হতে চলেছে স্বরযন্ত্রের করাল গ্রাসে আমাদের আওয়ামীলীগের ক্ষমতা প্রয়োগ করে একজন ব্যক্তি লক্ষ লক্ষ বাচ্চাদের রক্ত ঝড়াচ্ছে। আর এ রক্ত ঝড়ানো, এই সাজাটা বাচ্চাদের দেয়ার যুক্তিসঙ্গত কারণ এখনো আমি পাই নি। আমি সেই প্রতম দিন থেকে পর্যবেক্ষণ করতে করতে অসুস্থ হয়ে আজ ৫দিন পর নিজে বের হলাম। আমার হাত পা ভাঙ্গা। আমি যখন মেডিসিন কিনতে গেলাম গতকাল তখন রাত বাজে সাড়ে আটটা ইঞ্জিনিয়ার রে পুলিস এসে মারধর করে। তখন আমি বলি তারা তো দোকান লাগিয়ে দিচ্ছে তাহলে আপনারা মারধর করছেন কেনো। সরকার কি এমন কিছু বলছে। কিন্তু আসল ব্যপার হলো আমি অন্যায় জিনিসটা কখনোই মানতে পারি না আর সেটা ছেলে হোক বা মেয়ে। আমি সরকার দলীয় মানুষ বিএনপির আমলে বোমা হামলাও ভয় করি নি। রাজপথে আমরা মহিলারাও মিছিল করেছি।

 

সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে চলছে শিক্ষর্থীদের আন্দোলন। আন্দোলনের একপর্যায়ে গত বুধবার বিকেল থেকে আমরণ অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন ২৪ শিক্ষার্থী। এর মধ্যে বেশিরভাগই গত দুদিনে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন, হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে ১২ জনকে। আজ শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) জনসম্মুখে মাইকিং করে প্রকাশ্যে আওয়ামীলীগের সকল পদ থেকে প্রত্যাহারের ঘোষণা করলেন সাবেক কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন ।

এ সময় কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন বলেন, কে আমার পক্ষে যাবে আর কে বিপক্ষে, কে আওয়ামীলগের আর কে বিএনপিলীগের এমন ভেবে আমি অন্যায়কে সমর্থন করতে পারি না। আমি অন্যায় কে অন্যায় আর ন্যায় কে ন্যায় বলি। বাচ্চাদের প্রথম দাবি ছিলো ফ্রি ওয়াই সংযোগ এবং খাবার ও থাকার ব্যবস্থা করা। বাচ্চাদের খাবার তো মৌলিক অধিকার। বাচ্চারা কি ওয়িইফাই ছাড়া পড়তে পারবে আপনারাই বলেন। জাতির বিবেকের কাছে প্রশ্ন সিলেটের এ পবিত্র মাটিতে এত নির্মমতা কিভাবে হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমার বাচ্চারা আমাকে তালাবদ্ধ করে রেখেছিলো যাতে আমি না আসি তবুও আসি এসেছি। আমি আমার দায়বদ্ধতা থেকে আমার প্রতিবাদ করতে এসেছি। আজো যদি অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে গিয়ে আমার মরণ হয় মরবো।কিন্তু আমার বাচ্চাদের এভাবে মরণের পথ নিচ্ছে, অনশন করে, আর ওরা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে মৃত্যুশয্যায় শায়িত হচ্ছে। এশিয়ার অন্যতম বিদ্যাপিট এটা আর এরা অনশন করে মরছে। এটা কিভাবে মানা যায়।

উনার নাম ভিসি আমি ভিসি না বলে বললাম ছি!ছি!। আমাদের সিলেটের সম্মান বিনষ্টের ক্ষমতা কারো নাই। কিন্তু কোনো একজন অশিক্ষিত বর্বর কুলাঙ্গার আমাদের সম্মান বিনষ্ট করতে চায়। আমরা কিভাবে ঘরে বসে আছি। এই কুলাঙ্গার কে মদদ দেয়ার জন্য আমি আজ থেকে আওয়ামীলীগে আমার যে যে পদ আছে সব পদ থেকে পদত্যাগ করলাম। যারা স্বৈরাচারী মনোভাব যারা করে তাদের সাথে বন্ধুত্ব করতে পারি না।

এবিএ/ ২১ জানুয়ারি

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল