শাবি ছাত্রলীগের ৩৬ নেতাকর্মীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

শাবি ছাত্রলীগের ৩৬ নেতাকর্মীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

প্রকাশিত: ৪:২৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০১৬

শাবি ছাত্রলীগের ৩৬ নেতাকর্মীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

sust bcl০১ সেপ্টেম্বর ২০১৬, বৃহস্পতিবার: সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের ৩৬ নেতা-কর্মীকে বৃহস্পতিবার কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এঁদের মধ্যে চারজনকে এক সেমিস্টার, ১২ জনকে ৫০০ টাকা, ২০ জনকে ৫০০ টাকা জরিমানাসহ কেন হল থেকে বহিষ্কার করা হবে না তা জানতে চেয়ে এ কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।
এদিকে শুক্রবার থেকে সাপ্তাহিক ছুটিসহ ১৬ দিনের ঈদের ছুটি থাকায় ও সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে ছাত্রদের হল ছাড়তে নোটিশ দেওয়ায় তাঁরা হল ছেড়ে চলে গেছেন। তবে ছাত্রীদের শুক্রবার ১০টার মধ্যে হল ছাড়তে বলেছে হল প্রশাসন।
বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নথি থেকে জানা গেছে, গত ২৬, ২৭ ও ৩১ আগস্টে ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়াসহ মারমুখী অবস্থানের ঘটনায় ছাত্রলীগের চার কর্মীকে এক সেমিস্টারের জন্য কেন বহিষ্কার করা হবে না, তা জানতে চেয়ে নোটিশ দিয়েছে প্রশাসন। তাঁরা হলেন ছাত্রলীগ কর্মী ও বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় সেমিস্টারের আজমাইন, গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের রাকিব, নৃবিজ্ঞান বিভাগের তাজবির ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী লক্ষ্মণ। তা ছাড়া একই ঘটনায় ৫০০ টাকা জরিমানাসহ কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে ছাত্রলীগের ১২ নেতা-কর্মীকে। তাঁরা হচ্ছেন মনোয়ার হোসেন, ফাইয়াজ, নিয়াজ, তৌকির তন্ময়, রাখশ মণ্ডল, রনি তালুকদার, সজীব, সাখাওয়াত, শাহ আলম, মাহবুব, শাওন ও কামরুল ইসলাম। প্রক্টরিয়াল বডির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে এ নোটিশ দেয় কর্তৃপক্ষ।
জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
এদিকে ৩১ আগস্ট ছাত্রলীগের কর্মী মনোয়ার হোসেনের ওপর হামলা এবং এ ঘটনার জের ধরে মারমুখী অবস্থানের কারণে ৫০০ টাকা জরিমানাসহ কেন শাহপরান হল থেকে বহিষ্কার করা হবে না, তা জানতে চেয়ে ২০ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে শাহপরান হল প্রশাসন। ৩১ আগস্ট বিকেল পাঁচটার পর দুই পক্ষের সংঘর্ষের ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করে তাঁদের এ নোটিশ দেওয়া হয়েছে।
নোটিশ পাওয়া ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা হচ্ছেন জাকারিয়া, রাব্বী, শিহাব, রুহুল আমিন, কামরুল ইসলাম, নূরে আলম, তৌকির আহমদ তালুকদার, ঝুটন, আবদুল হাদি, আমজাদ, জনি, মোশাররফ, জাকির, আরাফাত ইয়াসিন, বাসিত মিয়া, মুনকির, ইয়ামিন, স্বাধীন, মোমিন ও আজমাইন। সন্ধ্যায় যোগাযোগ করা হলে শাহপরান হলের সহকারী প্রাধ্যক্ষ শাহেদুল হোসেন হল প্রশাসনের এ সিদ্ধান্তের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জীবন চক্রবর্তী বলেন, নোটিশ পাওয়া সবাই ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মী। ভুল–বোঝাবুঝি থেকে একটি ঘটনায় জড়িয়ে পড়েন এই নেতা-কর্মীরা। ভবিষ্যতে আর এমন ঘটনায় জড়াবেন না—বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এই মর্মে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল