শুদ্ধি অভিযানের মধ্যেও জালালাবাদ গ্যাসে চলছে অনিয়ম ও নিয়োগ বানিজ্য – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

শুদ্ধি অভিযানের মধ্যেও জালালাবাদ গ্যাসে চলছে অনিয়ম ও নিয়োগ বানিজ্য

প্রকাশিত: ৯:২৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০২০

শুদ্ধি অভিযানের মধ্যেও জালালাবাদ গ্যাসে চলছে অনিয়ম ও নিয়োগ বানিজ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশিত চলমান শুদ্ধি অভিযানের মধ্যেই জালালাবাদ গ্যাসের শীর্ষ কর্মকর্তাদের যোগসাজশে চলছে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি ও নিয়োগ বানিজ্য। প্রায় ৮০টি পদে নিয়োগ বাণিজ্য করে পদন্নোতি ও নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সুত্র মতে প্রকৌশলী এহছানুল হক পাটোয়ারী ব্যবস্থাপনা পরিচালক, শাহিনুর ইসলাম মহাব্যবস্থাপক (বিপনন উত্তর), মফিজুল ইসলাম (মহাব্যবস্থাপক প্রশাসন) আনিসুল হক ভুইয়া উপ মহাব্যবস্থাপক (জেনারেল সার্বিস)এবং নব্য শ্রমিক লীগ নেতা ও সাবেক মহানগর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম ভুইয়া, জামাতের ফজলুল বারী দিদারের নেতৃত্বে এই সকল কর্মকর্তা ও সিবিএ নেতাদের সিন্ডিকেট কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্ষা না করে বিশাল অংকের টাকার বিনিময়ে সব ড্রাইভারদের কে সুপারভাইজার বানানো হয়েছে এবং অনেক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পদন্নোতি দেয়া হয়েছে।

এমনকি সম্প্রতি রান সিকিউরিটির মাধ্যমে ড্রাইবার হেলপার ও এটেন্ডেন্ট গনহারে নিয়োগের কথা চাউর হয়েছে। এছাড়াও টেন্ডার ছাড়াই বোর্ড মিটিং বসিয়ে উক্ত সিন্ডিকেট নিজস্ব ঠিকাদার দিয়ে কাজ করিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এব্যপারে জালালাবাদ গ্যাসের এমডি ইসমাইল হুসেন পাটোয়ারীর ব্যবহারিত মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেন নি। জিএম প্রশাসন মফিজ উদ্দিনের ব্যবহারিত মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেন নি। জি এম জসিম উদ্দিনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেন নি।

তবে ডিজিএম আনিছুল হক ভুইয়া সিলেটের দিনকালকে জানান, যথাযথ নিয়ম মেনে সকল পদন্নোতি ও নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে। অন্য বিষয়গুলো নিয়ে আলাপ করতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যান। বিষয়ে নিয়ে সিবিএ সভাপতি মুড়লী সিং’র ব্যবহারিত মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেন নি। ফোন রিসিভ করেন নি শাহ আলম ভুইয়া ও ফজলুল বারী দিদার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল