শ্রীমঙ্গলে পৌরসভার বর্ধিতকরণ ও নির্বাচনের দাবিতে মানববন্ধন – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

শ্রীমঙ্গলে পৌরসভার বর্ধিতকরণ ও নির্বাচনের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৫:১১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২০

শ্রীমঙ্গলে পৌরসভার বর্ধিতকরণ ও নির্বাচনের দাবিতে মানববন্ধন

 

 

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:: মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা নির্বাচন বন্ধ না করে দ্রæততম সময়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভা বর্ধিতকরণ ও নির্বাচনের দাবীতে এ মানববন্ধন করেছে বর্ধিতকরণ ও নির্বাচন বাস্তবায়ন পরিষদ। শনিবার সকাল ১১টায় চৌমুনাচত্বরে পৌরসভা বর্ধিতকরণ ও নির্বাচন বাস্তবায়ন পরিষদের আয়োজনে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আছকির মিয়ার সভাপতিতে ও তোফাজ্জল হোসেন ফয়েজের সঞ্চালনায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ সৈয়দ মনসরুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মো. ইউসুফ আলী, আবু সহিদ আব্দুল্লাহ, ডা. হরিপদ রায়, যুগ্ম সম্পাদক এনাম হোসেন চৌধুরী মামুন, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরফরাজ আলী বাবুল, সদর ইউ‘পি চেয়ারম্যান ভানু লাল রায়, আশিদ্রোণ ইউ‘পি চেয়ারম্যান রনেন্দ্র প্রসাদ বর্ধন জহর, উপজেলা জাসদের সভাপতি হাজী এলেমান কবীর, ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি এএসএম ইয়াহিয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক কদর আলী, জেলা পরিষদের সদস্য বদরুজ্জামান সেলিম প্রমুখ। বক্তারা বলেন, শ্রীমঙ্গল পৌর নির্বাচন স্থগিত রয়েছে প্রায় ৫ বছর। তাই মামলা জটিলতা দেখিয়ে দীর্ঘ ৫ বছর ধরে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার কোন নির্বাচন হচ্ছে না। নেতৃত্বর বিকাশ, সুশাসন নিশ্চিত এবং গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা রায় সব জটিলতা নিরসন করে দ্রæততম সময়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ শ্রীমঙ্গল পৌরসভার নির্বাচন দিতে হবে। বক্তারা আরোও বলেন, বর্তমান পৌর মেয়র মেকানিজম করে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে জনগণের রায় ছাড়া পাথরের মতো চেয়ার আঁকড়ে থাকা গণতান্ত্রিক রীতি-নীতি ও সংস্কৃতির পরিপন্থী ক্ষমতা ধরে রেখেছে। পৌর মেয়রের পদত্যাগ দাবী করেন এবং দ্রæততম সময়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ শ্রীমঙ্গল পৌরসভার নির্বাচন দেয়ার ও দাবী জানান।
উল্লেখ্য ২০১১ সালের ১৮ জানুয়ারি পৌরসভার নির্বাচন হয়েছিল। কিন্তু বর্ধিত এলাকা নিয়ে নির্বাচন করার উচ্চ আদালতের নির্দেশনা থাকা সত্বে ও সীমানা জটিলতার অজুহাত দেখিয়ে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার প্রায় ৫ বছর অতিক্রান্ত হলেও পৌরসভার নির্বাচন না হওয়ার তারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।। যা ৫ বছর পর পুনরায় নির্বাচন দেয়ার নিয়ম থাকলেও পৌরসভার সীমানা জটিলতার কারণে দীর্ঘ ৫ বছর একই নির্বাচনে মেয়র ক্ষমতায় রয়েছে। তাই নির্বাচনের সময় অতিক্রান্ত হলেও মামলা জটিলতার কারণে সময় মতো পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। ১৯৩৫ সালে২.৫৮ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে গঠিত হয়েছিল শ্রীমঙ্গল পৌর এলাকা আজও ২.৫৮ বর্গ কিলোমিটার।
ইতিমধ্যে দুইবার শহর বর্ধিতকরণের সরকারী গেজেট নোটিফিকেশন জারী হয়েছিল। প্রথমটি ০১ অক্টোবর, ১৯৮১ সালে, দ্বিতীয়টি ০১ এপ্রিল, ১৯৯৬ সালে। ২০০১ সালের ১৯ মার্চ পৌরসভা এলাকার সম্প্রসারণ সংক্রান্ত একটি এসআরও জারী করা হয়। কিন্তু তা-ও অধিক দূর অগ্রসর হয়নি। আজ ও শ্রীমঙ্গল পৌরসভার আয়তন ২.৫৮ বর্গ কিলােমিটার। অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলা ভূমি শ্রীমঙ্গল। পর্যটক নগরী এই শ্রীমঙ্গল, এখানে পাহাড় আছে, আছে নুপুর নিক্কনে বয়ে যাওয়া সুন্দরী ঝর্ণা। আছে অফুরন্ত মাছের ভান্ডার এবং শীতের অতিথি পাখিদের বিচরণক্ষেত্র হাইল হাওড়। লাউয়াছড়া, রেইন ফরেষ্টর হাতছানি এবং সবুজের পালিচায় মড়ো চা বাগান, রাবার বাগান, প্রকৃতির রাণীর আসনে বসিয়েছে শ্রীমঙ্গলকে। এতদঞ্চলের ব্যবসা বাণিজ্যের প্রাণকেন্দ্র শ্রীমঙ্গল শহর, শ্রীমঙ্গল পৌরসভা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল