সংগীতে বারী সিদ্দিকীর অবদান জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে : খালেদা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সংগীতে বারী সিদ্দিকীর অবদান জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে : খালেদা

প্রকাশিত: ৮:৩৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০১৭

সংগীতে বারী সিদ্দিকীর অবদান জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে : খালেদা

সংগীতশিল্পী ও বাঁশিবাদক বারী সিদ্দিকী বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়া।

এক শোকবার্তায় বিএনপি চেয়ারপারসন মরহুম বারী সিদ্দিকীকে লোকগান ও আধ্যাত্মিক গানের একজন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, ‘তার গান এ দেশের সংগীতপ্রেমী মানুষের হৃদয়কে নাড়া দিয়েছিল। তার কণ্ঠে মরমি গানে সংগীতপ্রিয় মানুষ মোহাবিষ্ট থাকতেন। বারী সিদ্দিকীর মৃত্যু সংগীতানুরাগী মানুষের জন্য অত্যন্ত মর্মস্পর্শী ও বেদনার। একাধারে সংগীতশিল্পী, গীতিকার ও বাঁশিবাদক হিসেবে বারী সিদ্দিকী এ দেশের কীর্তিমান সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বদের মধ্যে অন্যতম। দেশের এই বরেণ্য সংগীত সাধক তার অক্লান্ত অধ্যবসায় দ্বারা দেশের লোকসংগীত ও আধ্যাত্মিক ধারার গানের জগতকে করেছিলেন সমৃদ্ধ। সংগীতাকাশে তিনি ছিলেন এক উজ্জ্বল জ্যোতিস্ক। তার মৃত্যুতে দেশ হারাল অসাধারণ একজন গুণী শিল্পীকে যার অভাব সহজে পূরণ হওয়ার নয়। সংগীতে তার অবদান জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন শোকবার্তায় মরহুম কণ্ঠশিল্পী বারী সিদ্দিকীর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবারের সদস্য, গুণগ্রাহী, ভক্ত ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা জানান।

১৯৫৪ সালের ১৫ নভেম্বর নেত্রকোনায় জন্মগ্রহণ করেন। শৈশবে পরিবারেই গান শেখায় হাতেখড়ি তার। মাত্র ১২ বছর বয়সেই নেত্রকোনার শিল্পী ওস্তাদ গোপাল দত্তের অধীনে তার আনুষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ শুরু করেন। মূলত গ্রামীণ লোকসংগীত ও আধ্যাত্মিক ধারার গানের শিল্পী তিনি। তবে একাধারে তিনি খ্যাতিমান সংগীতশিল্পী, গীতিকার ও বংশীবাদক। বংশীবাদক হিসেবেই শুরু হয় তার পথ চলা। নিজেকে শিল্পীর চেয়ে বংশীবাদক পরিচয় দিতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন তিনি।