সংবাদ সম্মেলনে এড. মিসবাহ সিরাজ: বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সংবাদ সম্মেলনে এড. মিসবাহ সিরাজ: বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে

প্রকাশিত: ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০১৬

সংবাদ সম্মেলনে এড. মিসবাহ সিরাজ: বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে

13906660_640302082792018_7919214745594883807_nবিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের আমলে সিলেটে ঘটে যাওয়া গ্রেনেড ও বোমা হামলায় জড়িত কেউই রেহাই পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ।

সিলেটের তালতলাস্থ গুলশান সেন্টারে আওয়ামী লীগের কার্যকরী সভায় গ্রেনেড হামলার এক যুগ পূর্তি উপলক্ষে শনিবার দুপুরে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘২০০৪ সালের ৭ আগস্ট গুলশান সেন্টারে আওয়ামী লীগ নেতাদের হত্যার উদ্দেশ্যে বোমা হামলা চালানো হয়েছিল। নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ বাংলাদেশ ওই হামলা চালায়। এর পেছনে মদদদাতা ছিল তারেক-হারিছরা।’

ওই হামলায় নিহত হওয়া মহানগর আওয়ামী লীগের তৎকালীন প্রচার সম্পাদক ইব্রাহিম আলীর আত্মার শান্তি কামনা করে মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেন, ‘হামলায় আওয়ামী লীগের ২০ জন নেতাকর্মী আহত হন। তাদের অনেকেই এখনো স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারছেন না।’

তিনি আরো বলেন, ‘কারা জঙ্গি গোষ্ঠী সৃষ্টি করছে, কারা তাদের মদদ দিচ্ছে, তা এখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট। দেশে বিএনপি-জামায়াতের মদদে, আশির্বাদপুষ্ট হয়ে সরকারকে অস্থিতিশীল করতেই একের পর এক জঙ্গি হামলা হচ্ছে।’

চারদলীয় জোট সরকারের আমলে দেশে বিভিন্ন জঙ্গি হামলার ঘটনার বিবরণ দিয়ে মিসবাহ সিরাজ বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের মদদেই এসব ঘটেছে। বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন ‘রোলমডেল’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ যখন সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে, তখন পাকিস্তানের দোস বিএনপি-জামায়াত ঈর্ষান্বিত হয়ে দেশকে অস্থিতিশীল অকার্যকর রাষ্ট্র করতে তৎপর।’

বিএনপি-জামায়াতের আমলে বিভিন্ন স্থানে গ্রেনেড ও বোমা হামলার ঘটনা ‘ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা করা হয়েছিল’ মন্তব্য করে মিসবাহ সিরাজ বলেন, ‘এখন তা অতীত। সব ঘটনার বিচার হবে। সিলেটে সকল জঙ্গি হামলার বিচার হবে। জঙ্গিদের মূলোৎপাটন করা হবে। এজন্য প্রয়োজন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্য।’

এসময় অন্যানের মধ্যে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক লুৎফুর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।