সম্মেলন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে কাজ করতে হবে – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সম্মেলন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে কাজ করতে হবে

প্রকাশিত: ১১:২৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

সম্মেলন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে কাজ করতে হবে

দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি
সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সিলেট-৩ আসনের এমপি, বাণিজ্য ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী বলেছেন, আগামী ২৫ নভেম্বর দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে সম্পন্ন করতে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে এক যোগে কাজ করতে হবে। প্রধানমন্ত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা দলের ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখতে ও দলের কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করতে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা কমিটিগুলো ত্যাগী পরীক্ষিত প্রবীণ ও তরুণ নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন। যাতে দলের কার্যক্রম সুদৃঢ় হয়। এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে সারাদেশে প্রতিটি কমিটি গঠন কার্যক্রম চলছে। এ ধারাবাহিকতায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ। সফল ভাবে সম্মেলন সম্পন্ন করতে সকলকে কাজ করার আহবান জানান।
এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী শনিবার সকালে দক্ষিণ সুরমা একটি কমিউনিটি সেন্টারে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সফলের লক্ষ্যে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ সাইফুল আলম এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হাজী রইছ আলীর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক এডভোকেট মাহফুজুর রহমান, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুক আহমদ, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কবির উদ্দিন আহমদ, সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা শহিদুর রহমান শাহীন, এডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি হাজী আকবর আলী। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হাজী চুনু মিয়া ও হাজী আব্দুস সালাম, যুগ্ম সম্পাদক রাজ্জাক হোসেন ও সাহেদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম, মাসুক উদ্দিন ও আব্দুল মুতিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল করিম হেলাল, শাহ ছমির উদ্দিন, শাহ আলম, কামাল উদ্দিন রাসেল, ফখরুল ইসলাম সাইস্তা চেয়ারম্যান, আলী রাজা, গোলাম হাফিজ লুহিত, আলী আহমদ খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলফাজ উদ্দিন, আজাদ মিয়া, খিজির খান, পংকী মিয়া, আব্দুর রব, রফিকুল ইসলাম, তপন চন্দ্র পাল, তাহসিন আহমদ দীপু, আব্দুল আহাদ, জামাল উদ্দিন, এডভোকেট আলম, মতিউর রহমান মতি, সিলাম ইউপি চেয়ারম্যান ইকরাম হোসেন বখত, বরইকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গৌছ মিয়া, মোল্লারগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুমিন হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জবরুল ইসলাম জগলু, লালাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বুলবুল আহমদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মুহিদ হোসেন, কুচাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রহমান আনা, সাধারণ সম্পাদক আখতার হোসেন, সিলাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক আব্দুল হাই আতিক মাষ্টার, যুগ্ম আহবায়ক নেছার আলী, মোগলাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শানর মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মহি উদ্দীন, দাউদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আতিকুল হক, জালালাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ আব্দুল মালিক মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক ওয়েছ আহমদ, তেতলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছিত রানা, কামালবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, হাজী আতিকুর রহমান ও সিরাজ মিয়া প্রমুখ।
সভায় জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুক আহমদ-কে আহবায়ক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী রইছ আলীকে সদস্য সচিব করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়।
এছাড়া সম্মেলনের স্থান নির্ধারণের জন্য জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক এডভোকেট মাহফুজুর রহমান, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুক আহমদ, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ সাইফুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক হাজী রইছ আলী সমন্বয়ে ৬ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।
সভায় জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীরকে আহবায়ক করে অর্থ উপ-কমিটি, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা তপন চন্দ্র পালকে আহবায়ক ও কামাল উদ্দিন রাসেল, মতিউর রহমান মতি ও জামাল উদ্দিনকে সদস্য করে প্রচার উপ-কমিটি, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল করিম হেলালকে আহবায়ক ও তাহসিন আহমদ দীপুকে সদস্য সচিব করে আপ্যায়ন উপ-কমিটি গঠন করা হয়।