সম্মেলন হয়, কমিটি নয় – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সম্মেলন হয়, কমিটি নয়

প্রকাশিত: ১০:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

সম্মেলন হয়, কমিটি নয়

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে বৃহৎ রাজনৈতিক দু’দলকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। ফলে দু’দলেই প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। নতুন কমিটি স্থান পেতে বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ।
আওয়ামী লীগ-বিএনপিসহ সব দল ও অংগ সংগঠনের নেতৃত্বে নির্বাচনের গঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়া হলো সম্মেলন। এই সম্মেলনে কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হয়।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি জাতীয় ভাবে যে কয়টি সম্মেলন উদ্বোধন করেছেন সব কয়টিতে কাউন্সিল অধিবেশন করেছেন এবং অধিবেশনেই কমিটি ঘোষণা করেছেন। বিশেষ করে সভাপতি সাধারণ সম্পাদক পদে নাম ঘোষণা করে এসেছেন।
সিলেট বিভাগের প্রায় সবগুলি উপজেলায় সম্মেলন হচ্ছে। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে এইসব সম্মেলন শেষে কাউন্সিল অধিবেশন হয়েছে এবং কাউন্সিল অধিবেশনেই কমিটি ঘোষিত হয়েছে।
শুধুমাত্র ব্যতিক্রম হয়েছে সুনামগঞ্জ জেলার দুই ইউনিটের সম্মেলনে। জেলার বিশ্বম্ভরপুর ও মধ্যনগর থানা কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও আজ পর্যন্ত কোনো কমিটি ঘোষিত হয় নাই। গত ৫ নভেম্বর বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও কাউন্সিল অধিবেশন না করেই জেলা নেতৃবৃন্দ চলে আসেন। পরবর্তীতে উপজেলা নেতৃবৃন্দকে জেলা শহরের সাধারণ সম্পাদক এবং সভাপতির বাসায় কয়েকদিন ঘুরিয়ে দুই নেতাই ঢাকা চলে আসেন। যে কারণে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় নেতৃত্বে আসতে আগ্রহী নেতারা বিক্ষুব্ধ হয়ে আছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক জন নেতা জানান, সভাপতি-সেক্রেটারি তাদের পকেটের লোকের নাম ঘোষণা করলে সাথে সাথেই পাল্টা কমিটি ঘোষণা করা হবে।
এদিকে মধ্যনগর থানা কমিটির সম্মেলন কোনো প্রকার আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই একটি পথসভার মতো ঝটিকা সভা করেই তাড়াহুড়ো করে চলে আসেন। জানা যায়, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নুরুল হুদা মুকুট সাহেব মঞ্চে উঠার আগ পর্যন্ত জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুই জনেই থানায় বসা ছিলেন।
কাউন্সিল অধিবেশন দুরের কথা, জাতীয় পতাকা, দলীয় পতাকা, এমনকি সভার সভাপতি পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয় নি।
এই এলাকার সাংসদ এবং তার বলয়ের লোকজন এই সম্মেলনকে প্রহসন বলে আখ্যায়িত করেছেন। এবং স্থানীয় সাংসদ মোয়াজ্জেম হোসেন রতন জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে কমিটি বাণিজ্যের অভিযোগ করেছেন।
তার বলয়ের লোকজন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন কেন্দ্রে।
মধ্যনগর থানা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ৮ নভেম্বর। ওইদিন দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত স্থানীয় সাংসদ মোয়াজ্জেম হোসেন রতন কে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সম্মেলন স্থলে না যেতে নির্দেশ দিলে স্থানীয় প্রশাসন তাকে একটি ঘরে আটক করে রাখেন। তারপরেও জেলা কমিটি কাউন্সিল না করেই তাড়াহুড়ো করে কমিটি না দিয়ে সুনামগঞ্জ চলে আসেন।
এদিকে জেলা সভাপতি মতিউর রহমান বলেন, এখানে ভোটগ্রহণ হয় নাই। ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে কমিটি দেওয়া হবে। শিগগিরই কমিটি দেওয়া হবে জানা মতিউর রহমান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল