সরকারের নিষেধে রায়ের কপি দেয়া হচ্ছে না: রিজভী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সরকারের নিষেধে রায়ের কপি দেয়া হচ্ছে না: রিজভী

প্রকাশিত: ৪:৫৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৮

সরকারের নিষেধে রায়ের কপি দেয়া হচ্ছে না: রিজভী

রায় ঘোষণার পর ৮ টি অতিবাহিত হলেও সরকারের নিষেধে রায়ের কপি না দেয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ সকাল এগারোটায় রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।
রিজভী বলেন, ‘নিয়ম অনুযায়ী ৫ দিনের মধ্যে বিবাদী পক্ষকে রায়ের কপি দেয়ার বিধান থাকলেও এক্ষেত্রে তা মানা হচ্ছে না। মিথ্যা, সাজানো মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে নির্জন পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দী করার পর ৮ দিন পার হয়ে গেছে। এখনও রায়ের কপি দেননি আদালত।’
রিজভী আরো বলেন, ‘এটা বিচার বিভাগের ওপর সরকারের আগ্রাসী হস্তক্ষেপ প্রমাণ করে। সরকারের নিষেধের কারণেই রায়ের কপি পাওয়া যাচ্ছে না। এতেই প্রমাণিত হয় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়ার মাস্টারমাইন্ড হচ্ছেন শেখ হাসিনা এবং হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ।’
রায়ের সার্টিফাইড কপি সরবরাহে বিলম্ব হওয়া নিয়ে রিজভী অভিযোগ করেন, ‘তাহলে নিশ্চয়ই রায় সংশোধন করা হচ্ছে।

নিশ্চয়ই আওয়ামী লীগের নির্দেশ মতো মনগড়াভাবে রায় সংশোধন করা হচ্ছে। এই প্রশ্ন এখন সাধারণ মানুষের মুখে মুখে। বিচারক ৬৩২ পৃষ্ঠার রায় ১০ দিনে লিখে শেষ করতে পারেননি, এতে এটাই প্রমাণিত হয়, পুরো রায় না লিখে তড়িঘড়ি সাজার অংশটুকু লিখে বিচারক রায় দিয়ে দিয়েছেন। জাল জালিয়াতি ও ঘষামাজা করে ভুয়া কাগজপত্র তৈরির মাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট মামলা দিয়ে যে প্রহসনের রায় দেয়া হয়েছে গোটা জাতি তা ঘৃনাভরে প্রত্যাখান করেছে।’
সংবাদ সম্মেলনে রিজভী আরো জানান, দলের কারারুদ্ধ চেয়ারপারসন বেগম জিয়ার মুক্তির দাবি আগামী বৃহস্পতিবার ২২শে ফেব্রুয়ারি সমাবেশ করবে বিএনপি। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অথবা পার্টি অফিসের সামনে সমাবেশের স্থান চেয়ে ডিএমপির কাছে অনুমতি চাওয়া হবে। এর বাইরে আগামীকাল সকালে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে সহ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে গণস্বাক্ষর অভিযান।