সাংবাদিক সম্মেলনে ড. একে আবদুল মোমেন: ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেন সরকারের আন্তরিকতা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সাংবাদিক সম্মেলনে ড. একে আবদুল মোমেন: ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেন সরকারের আন্তরিকতা

প্রকাশিত: ১:৪০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০১৬

সাংবাদিক সম্মেলনে ড. একে আবদুল মোমেন: ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেন সরকারের আন্তরিকতা

mominnnn১৬ অক্টোবর ২০১৬, রবিবার: সিলেটে রোববার বিকেল সাড়ে ৪টায় জনাকীর্ণ এক সংবাদ সম্মেলনে সিলেট বাসীর প্রাণের দাবি ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেন প্রকল্পের বিস্তারিত তথ্যাদি তুলে ধরেছেন জাতিসংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড: এ কে এম আব্দুল মোমেন। সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের একটি লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নের রূপকার ড. মোমেন সিলেটের প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক চারলেনে উন্নিতকরন প্রকল্পের বিভিন্ন দিক নিয়ে প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন। সিলেটবাসীর এমন স্বপ্ন বহুদিনের। কিন্তু এতোদিন এনিয়ে কোন কার্যকর উদ্যোগ পরিলক্ষিত হয় নি। অবশেষে ড. মোমেনের ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠা ও আন্তরিকতায় সম্প্রতি চারলেনে উন্নিতকরন প্রকল্পের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়িত হচ্ছে। সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের এই দাবীটি একসময় শুধু স্বপ্নই ছিলো কিন্তু আজ তা বাস্তবে রূপায়িত হতে যাচ্ছে।
রোববার বিকেলে হাফিজ কমপ্লেক্সে বসে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেন প্রকল্পের নানা তথ্য সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন ড. আব্দুল মোমেন। কিভাবে এতোবড় একটি বৃহৎ প্রকল্প অনুমোদন হলো সেই গল্প শোনান তিনি উপস্থিত সকলকে। তুলে ধরেন এর পেছনের ইতিহাস।
সিলেটবাসীর আশা আকাঙ্খার চারলেন প্রকল্প অনুমোদন হওয়ায় সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে ধন্যবাদ জানান।
সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার হোসেন শামীমের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, সিলেটের সম্ভাবনাময় এক নেতা ছিলেন ইফতেখার হোসেন শামীম। আমরা তাকে নিয়ে অনেক আশা দেখেছিলাম। শামীমের মৃত্যু আমাকে প্রবলভাবে নাড়া দিয়েছিলো। তার মর্মান্তিক মৃতুর পর থেকে এই সড়কটি চারলেন করা যায় কিভাবে তা নিয়ে কাজ করি। অবশেষে তার বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে।
তিনি আরো বলেন এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে গেলে জমি অধিগ্রহন করার প্রয়োজন হতে পারে। সবাই সেই দিকে নজর রাখতে হবে যাতে এ নিয়ে কোন ঝামেলা না হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট লুৎফুর রহমান, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরীসহ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।