সিলেটে আট কোটি টাকা মূল্যের শুল্ক ফাঁকির তিনটি বিলাসবহুল গাড়ি জব্দ

প্রকাশিত: ১১:০২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৬

সিলেটে আট কোটি টাকা মূল্যের শুল্ক ফাঁকির তিনটি বিলাসবহুল গাড়ি জব্দ

bbbbabababba২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬, সোমবার: সিলেটে শুল্ক ফাঁকি দেয়া তিনটি বিদেশী বিলাসবহুল গাড়ি জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। গাড়িগুলোর আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় আট কোটি টাকা। সোমবার এই তিনটি গাড়ি জব্দ করা হয়।
গাড়িগুলো কারনেট সুবিধার আওতায় শুল্ক ফাঁকি দিয়ে বিদেশ থেকে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। এনিয়ে গত তিনমাসে সিলেট থেকে শুল্ক ফাঁকির ৭ টি গাড়ি জব্দ করা হলো। সিলেটে কারনেট সুবিধায় আনা আরো ৩০ টি গাড়ি নজরদারিতে রয়েছে বলে জানিয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান।
শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, বিভিন্ন সময়ে পৃথক অভিযানে মৌলভীবাজার থেকে ‘মিতসুবিশি’ ব্রান্ডের ২৯৭২ সিসি’র জীপ গাড়ি ও ‘নিশান ৩০০ জেডএক্স’ ব্রান্ডের ৩০০০ সিসি’র গাড়ি আটক করা হয়। এছাড়া সিলটে নগরীর সুবিবাজার থেকে ‘জাগুয়ার এস টাইপ’ ব্রান্ডের ৪১৯৬ সিসি’র গাড়ি আটক করা হয়। আইনী  প্রক্রিয়া শেষে আজ (সোমবার) গাড়িগুলো জব্দ করা হয়।
গাড়িগুলো সাময়িকভাবে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সিলেট কার্য্যালয়ে রাখা হয়েছে।
তিনটি গাড়ি জব্দের পর আজ দুপুরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মহাপরিচালক ড. মইনুল খান বলেন যে, ভূয়া কাগজপত্র দাখিল করে বিআরটিএ থেকে এই গািড়গুেলা রেজিস্ট্রেশন কের নেয়া হয়েছে।
ড. মইনুল খান বলেন যে, শুল্ক গোয়েন্দারা মিথ্যা ঘোষণায় আনা এবং কারনেট সুবিধার অপব্যবহারের মাধ্যমে আনা গাড়ি আটকের জন্যে সারা দেশে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে। এ পর্যন্ত সিলেট অঞ্চলে মোট ৭ টি গাড়ি আটক করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, কেউ স্বেচ্ছায় কেউ গাড়ি জমা প্রদান করলে আইনানুগ সকল সহায়তা প্রদান করা হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল