সিলেটে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’: ১০ দিনে ৬৮ লাখ টাকার কর আদায় – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেটে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’: ১০ দিনে ৬৮ লাখ টাকার কর আদায়

প্রকাশিত: ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০১৬

সিলেটে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’: ১০ দিনে ৬৮ লাখ টাকার কর আদায়

onestipসিলেটে সাড়া ফেলেছে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’। এ সার্ভিস চালুর মাত্র ১০ দিনে প্রায় ৬৮ লাখ টাকার ট্রেড লাইসেন্স কর আদায় করেছে সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ। ১৮ জুলাই থেকে নগরের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে ব্যবসায়ীদের জন্য শুরু হওয়া এ সার্ভিস চলবে কাল সোমবার পর্যন্ত। এ সার্ভিস চালু হওয়ার পর অসংখ্য নতুন ব্যবসায়ী ট্রেড লাইসেন্স গ্রহণ করেছেন বলে করপোরেশনের কর আদায় শাখার এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।
কর আদায় শাখা জানিয়েছে, নগরের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নতুন ট্রেড লাইসেন্স প্রদান এবং ট্রেড লাইসেন্স নবায়নের কাজ দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন করতে ১৫ দিনব্যাপী ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ চালু করে একধরনের মেলার আয়োজন করেছে সিটি করপোরেশন। এখানে সাতটি বুথে করপোরেশনের ৭০ জন কর্মকর্তা এবং সিটি করপোরেশনের সোনালী ব্যাংক শাখার চারজন কর্মকর্তা ব্যবসায়ীদের সেবা প্রদান করছেন। ২৭ জুলাই পর্যন্ত এ কার্যক্রমের মাধ্যমে ৬৭ লাখ ৬৭ হাজার ২৪৩ টাকা কর আদায় হয়েছে।
গতকাল শনিবার সরেজমিনে দেখা গেছে, ছুটির দিনেও ট্রেড লাইসেন্স প্রদান কার্যক্রম চালু ছিল। দিনভর সাতটি বুথেই ব্যবসায়ীরা ভিড় জমিয়েছেন। নগরের একটি জুতার দোকানের ব্যবসায়ী মঈনুল ইসলাম বলেন, ‘নিরিবিলি পরিবেশে এসে দ্রুত ট্রেড লাইসেন্স করতে পেরেছি। এ ছাড়া এমন উদ্যোগ নেওয়ার কারণে নতুন ব্যবসায়ীরাও ট্রেড লাইসেন্স করতে উৎসাহী হয়েছেন।’
সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, সেবাকে জনবান্ধব ও হয়রানিমুক্ত রাখতে এ ধরনের একটি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এতে করে সহজে ও দ্রুত কর আদায় হচ্ছে। নগরের যেসব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান এখনো ট্রেড লাইসেন্স গ্রহণ করেনি কিংবা নবায়ন করেনি, তাদের লাইসেন্স সহজে প্রাপ্তির লক্ষ্যেই ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করা হয়েছে।
প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘লাইসেন্স ছাড়া অনেক ব্যবসায়ী ব্যবসা চালাতেন। এ সার্ভিস চালু হওয়ার পর ট্রেড লাইসেন্স না-করা অনেক ব্যবসায়ী নতুনভাবে লাইসেন্স গ্রহণ করেছেন। এ রকম সাড়া পড়ার বিষয়টি আমরা ইতিবাচকভাবে গ্রহণ করেছি। এ আয়োজনের সাফল্য বিবেচনায় নিয়ে নগরের দক্ষিণ সুরমা অংশে শিগগিরই একই রকম কার্যক্রম পরিচালনারও চিন্তাভাবনা আমাদের মধ্যে রয়েছে।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল