সিলেটে কমেডি নাটক দিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন মুরাদ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেটে কমেডি নাটক দিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন মুরাদ

প্রকাশিত: ৭:৪৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৭

সিলেটে কমেডি নাটক দিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন মুরাদ

জাকির হোসেন দিপু (বিনোদন প্রতিবেদক): সিলেটের জনপ্রিয় কয়েকজন কমেডি অভিনেতার মধ্যে বেলাল আহমেদ মুরাদ একজন। খুব অল্প সময়ের ভিতরে তরুণ এই অভিনেতা জায়গা করে নিয়েছেন সিলেটের লাখো মানুষের মনে। একের পর এক কমেডি ভিডিও তৈরি করে মানুষের প্রশংসা ও ভালবাসা কুড়াচ্ছেন এই অভিনেতা। ৪-৫ মিনিটের এই ভিডিও গুলোতে তিনি সমাজের অসংগতি এবং মানুষের ভূল গুলো তুলে ধরবার চেষ্টা করেন। তার ভক্ত অনুরাগীরা ফেইসবুকে (আমরা অভিনেতা মুরাদ এর ভক্ত) নামে একটি পেইজ ওপেন করেন, এই পেইজে ধারাবাহিক ভাবে তার করা নাটিকা এবং তিনি কবে কোথায় কখন অভিনয় করছেন পুস্ট করা হয়। উদীয়মান এই অভিনেতা সিলেট শহরের কলাপড়া ঘাসিটুলা এলাকার বাসিন্দা। পিতা:মো: মোক্তার আহমেদ, এক জন ব্যবসায়ী, মাতা:মোছা: বিলকিস বেগম এক জন গৃহীনি।চার ভাইয়ের মধ্যে উনি বড়।পঞ্চম শ্রেণী থেকে নিজের মায়ের প্রচেষ্টায় অভিনয় শিখেন, বেলাল আহমেদ মুরাদ। ছোট বেলা থেকে অভিনয়ের প্রতি আলাদা আকর্ষণ থেকে ধীরে ধীরে নিজেকে জড়িয়ে পরেন অভিনয় জগতের সাথে। ২০০৬ সালে মঞ্চ নাটকের মধ্য দিয়ে অভিনয় জগতে পা রাখেন এই অভিনেতা এবং একই বছয় মঞ্চ নাটকে সফলতা লাভ ককেন । ২০০৮ সালে বৈশাখী পদ্ধাকুড়ীর সেরা দশে স্থান পান এবং পদক পয়ে তারকা হন। ইতিমধ্যেই তার নাটক গুলা ফেইসবুক ও ইউটিউব এ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ফেইসবুক এর বিভিন্ন পেইজে তার নাটক গুলো আপলোড করা হয়। আপলোড হওয়া মাত্র লক্ষ লক্ষ দর্শক তার নাটক গুলো দেখে প্রশংসা করেন। ইতিমধ্যে তার আলোচিত নাটিকা গুলি হচ্ছে ,এমএলএম, তামাশা ১, তামাশা ২ ডিস্টার্ব ১,২,৩ পাতিনেতা১,২,৩, ওয়ার্ড মেম্বার (১), হিজড়াদের নিয়ে ওয়ার্ড মেম্বার (২) ডাক্তার(১) ৪২০ সাংবাদিক(১) সহ অসংখ্য নাটক নাটিকা আজ গ্রিন বাংলার ইউটিউব চ্যানেলে। “মুরাদ ভাইয়ের নাটিকা গুলো দেখে অনেক মজা পাই এবং অনেক কিছু শিখা জায়,আমি মনে করি মুরাদ ভাই বাংলাদেশের মধ্যে একজন শ্রেষ্ঠ কমেডি অভিনেতা” হেসে হেসে কথা গুলো বলছিলেন অভিনেতা মুরাদের ভক্ত সিলেটের সব মিটিয়ারা। জনপ্রিয় এই অভিনেতা দৈনিক নন্দিত সিলেট২৪. কম কে বলেন” সিলেটি ভাষায় নাটিকা গুলো আমরা তৈরি করছি শুধুমাত্র সিলেটের ভাষাটাকে সর্বমহলে পরিচিত করার জন্য,আপনাদের সহযোগীতা পেলে আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে”। প্রতি সপ্তাহে সোমবারে গ্রিন বাংলার ইউটিউব চ্যানেলে একটি করে শিক্ষণীয় নাটিকা আপলোড করা হয়।অপসংস্কৃতির ভিড়ে অভিনেতা মুরাদের শিক্ষণীয় এই নাটিকা গুলি খুব ভালো ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন তার ভক্ত অনুরাগীরা। সর্বশেষ প্রচারিত তার নাটিকা পাতিনেতা সিরিয়াল ও ডাক্তার খুব আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। তার এই নাটিকা গুলা সিলেট তথা জাতীয় মিডিয়ায় ভুমিকা রাখবে বলে মনেকরেন সিলেটের সাংস্কৃতিক প্রেমিরা।
মুরাদের সাথে আরো কাজ করছেন খলিলুর রহমান খান, মতিউর রহমান সাদেক, প্রিন্স বিপ্লব, মিজানুর রহমান শামিম, শাহ ফাহিম মাহমুদ, আমিনুল ইসলাম, আদনান আহমেদ, আলি আহমেদ মাজেদ, তানভির আহমেদ, সিলেটের একঝাক সংস্কৃতি করমি।