সিলেটে গঠনতন্ত্রের বিরুদ্ধে ছাত্রদলের অবস্থান ! – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেটে গঠনতন্ত্রের বিরুদ্ধে ছাত্রদলের অবস্থান !

প্রকাশিত: ২:১৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৬

সিলেটে গঠনতন্ত্রের বিরুদ্ধে ছাত্রদলের অবস্থান !

sylhet-chotorodol-photo১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬, রবিবার: ১৯৭৮ সালে সিলেট হযরত শাহজালাল ও শাহপরাণ (রহ.) মাজার জিয়ারত শেষে ১ সেপ্টেম্বর রাজধানীতে বাংলাদেশ সুশীল, সমাজ পেশাজীবি, সর্বস্থরের সচেতন ব্যাক্তিদের নিয়ে প্রায় ২ ঘন্টার সংবাদিক সম্মেলনের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান।
শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল। বিএনপির পাশাপাশি তিনি ছাত্রসমাজের দাবী ধাওয়া আদায়ের জন্য ১৯৭৯ সালের ১ জানুয়ারী গঠন করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। ছাত্রদল এশিয়া মহাদেশের সর্ববৃহত ছাত্র সংগঠন। যা পুরো বিশ্বে আজ সুনামের সহিত রচিত হচ্ছে। ছাত্রদল ধীরে ধীরে বিএনপির মূল শক্তি ও হাতিয়ার হিসাবে রূপান্তরিত হয়েছে।
দীর্ঘ প্রায় ১৪ বছর পর ২০১৪ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর জেলা ও মহানগরে ৮ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে ৩ মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার জন্য বলেন কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ।
সিলেট ছাত্রদলের নেতা কর্মীদের মাঝে গত ৭ সেপ্টেম্বর থেকে বিরাজ করছে চরম হতাশা উৎকন্ঠা।
সিলেট জেলা ও মহানগর কমিটির মেয়ার উক্তীর্ণের ঠিক ৯ দিন পূর্বে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন তৃণমূল ছাত্রদলের মধ্যে চরম হতাশা ও উৎকন্ঠা সৃষ্টি করে।
বিগত কয়েক দিন আগে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয় জেলা ও মহানগরের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থানপ্রাপ্তদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত চিঠির মাধ্যমে তাদের পদবী নিশ্চিত করা হবে। তারই ধারাবাহিকতায় ১০ সেপ্টেম্বরে স্বাক্ষরিত চিঠি ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে পদপ্রাপ্তদের প্রদান করা হয়।
কিন্তু এভাবে পদ প্রাপ্ত নেতাদের কাছে চিঠি বিলীন করে দেওয়া ছাত্রদলের গঠতন্ত্র অমান্য ছাড়া আর কিছু নয়। কারণ গঠনতন্ত্রের কোথাও এরকম কোন হদিস নেই। গঠনতন্ত্র অনুসারে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পারেন চিঠি দিয়ে পদবী নিশ্চিত করা।
জেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক জেল হাজতে থাকা পরও তার একেক এক স্থানে একেক স্বাক্ষর ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে।
এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটওয়ারী জানান, এ ধরনের চিঠি প্রদান সর্ম্পকে আমি কিছু জানিনা বিষয়টি আমরা দেখছি। দলের গঠনতন্ত্র কেউ ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে দলীয় সংবিধান অনুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ ব্যাপারে মহানগরের সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী খালেদ জানান, পূর্ণাঙ্গ কমিটি অচিরেই প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে প্রকাশিত হবে। কমিটিতে স্থানপ্রাপ্ত একই নাম একাধিক ব্যাক্তির হওয়া পদবী নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়। তাই আমরা এ সমস্যা উত্তোরনের জন্য পদপ্রাপ্ত নেতাদের চিঠি দিয়ে তাদের পদবী নিশ্চিত করছি।
এ নিয়ে জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মকসুদ আহমদ জানান, পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে যে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে তা কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সৃষ্ট। নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যেমে কমিটি প্রকাশ করবে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। যাতে পদবী নিয়ে কোন জটিলতায় পড়তে না হয়। উক্ত জটিলতা থেকে উত্তোরনের জন্য পদপ্রাপ্ত নেতাদের চিঠি দিয়ে তাদের পদবী নিশ্চিত করা হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল