গর্ত ধসে ২ পাথরশ্রমিকের মৃত্যু – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

গর্ত ধসে ২ পাথরশ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ১, ২০১৮

গর্ত ধসে ২ পাথরশ্রমিকের মৃত্যু

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের শাহ আরেফিন টিলায় অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করতে গিয়ে গর্ত ধসে দুই শ্রমিক মারা গেছেন। গতকাল বুধবার দিনের বেলা ধসের ঘটনা ঘটলে রাতে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এখনো এক শ্রমিক নিখোঁজ আছেন বলে জানা গেছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দিলীপ কান্ত নাথ জানান, গতকাল দুপুরে টিলা এলাকার বশির আহমদের গর্তে পাথর উত্তোলন করতে গিয়ে কয়েকজন শ্রমিক পাথরচাপা পড়েন। সন্ধ্যার দিকে আহত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করা হয়। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে দুই শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত দুজন হলেন সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার বান্দা গ্রামের জমির হোসেন (৩৬) ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ জীবদারা গ্রামের আসাদ উদ্দিন (৩৫)। একই গ্রামের নাছির উদ্দিনের ছেলে কাঁচা মিয়া (৫০) নামের আরও একজন পাথরশ্রমিক নিখোঁজ আছেন বলে শ্রমিকেরা জানিয়েছেন।

গত রোববার রাতে কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ কোয়ারিতে গর্ত ধসে পাঁচ শ্রমিকের মৃত্যু হয়। গত সোমবার সকালে জৈন্তাপুর উপজেলার শ্রীপুর কোয়ারিতে গর্ত ধসে এক শ্রমিক মারা যান। ভোলাগঞ্জে পাঁচ শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলী আমজাদসহ সাতজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করে পুলিশ।

এ নিয়ে গত চার দিনে কেবল কোম্পানীগঞ্জেই মারা গেলেন ৭ শ্রমিক। আর গত ১৩ মাসে সিলেটের বিভিন্ন কোয়ারিতে গর্ত ধসে মারা গেছেন ৫২ জন পাথরশ্রমিক।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, সরকারি খাস খতিয়ানের ১৩৭ দশমিক ৫০ একর জায়গায় শাহ আরেফিন টিলা। কথিত আছে, প্রায় ৭০০ বছর আগে হজরত শাহজালাল (রহ.)–এর অন্যতম সফরসঙ্গী হয়রত শাহ আরেফিন (রহ.) খাসিয়া পাহাড় এলাকা পরিভ্রমণকালে পাহাড়-টিলা চূড়ায় বিশ্রাম নিতেন। শাহ আরফিনের একটি ‘আসন’ (বিশ্রামের স্থান) হিসেবে ওই টিলার নামকরণ হয়েছে শাহ আরেফিন টিলা।

লালচে, বাদামি ও আঠালো মাটির এ টিলার নিচে রয়েছে বড় বড় পাথরখণ্ড। পাথরখেকোদের একটি চক্র ২০০৯ সাল থেকে নানা কৌশলে টিলা কেটে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করছে। তবে এ বিষয় প্রথম ধরা পড়ে গত বছরের ২৩ জানুয়ারি টিলা কেটে পাথর উত্তোলনের সময় প্রথম দফা ধসে একসঙ্গে ছয়জন শ্রমিক নিহত হওয়ার পর। এরপর থেকে প্রশাসন টিলা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে। কিন্তু এ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চলছে পাথর উত্তোলন। সেই সঙ্গে টিলার গর্ত ধসে শ্রমিক হতাহত হওয়ার ঘটনাও ঘটছে।