সিলেটে শাবি’তে জঙ্গি তৎপরতা : আটক ৩ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেটে শাবি’তে জঙ্গি তৎপরতা : আটক ৩

প্রকাশিত: ৯:১১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০১৬

সিলেটে শাবি’তে জঙ্গি তৎপরতা : আটক ৩

sustসিলেটে জঙ্গি তৎপরতা এখন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি)। গত কয়েকদিন ধরে জঙ্গী তৎপরতার অভিযোগে শাবির তিন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। আটকাভিযান অব্যাহত রয়েছে। পরপর অভিযানে বুধবার শাবি’র আরেক শিক্ষার্থীকে আটক করে র‌্যাব ৯ সদস্যরা। তার নাম মো. জুয়েল আহমদ। বাড়ি সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলায়। সে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন হিযবুত তাহরীরের কর্মী বলে আউনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী সূত্র জানিযেছে। বুধবার রাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আটক জুয়েলকে র‌্যাব-৯ এর সদর দফতরে রাখা হয়েছিল এবং তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছিল।
জানা যায়, বুধবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সিলেট নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে জঙ্গি সন্দেহে চার যুবককে আটক করে র‌্যাব-৯ সদস্যরা।আটককৃত চার জনকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তাদের সম্পর্কে খোঁজখবর নিযে তাদের মধ্যে জুয়েলের বিরুদ্ধে জঙ্গি সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তবে আটক শিক্ষার্থী কোন বিভাগের সে বিষয়ে কিছু জানাতে পারেননি র‌্যাব। বাকি তিনজনের বিরুদ্ধে জঙ্গি সম্পৃক্ততার প্রমাণ না পাওয়ায় তাদেরকে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চারানো হয়।এ নিয়ে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন ছাত্রকে জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে আটক করা হলো।
২ আগস্ট মঙ্গলবার জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে আটক করা হয় শাবি ছাত্র ইফাত আহমেদ চৌধুরী নাহিদকে। নাহিদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইপিই) বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। এর আগে একই অভিযোগে আটক করা হয় আব্দুল আজিজকে। আজিজও আইপিই বিভাগের শিক্ষার্থী।
পরদিন ডিএমপি উপকমিশনার মাসুদুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে জানান, আব্দুল আজিজ আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সমন্বয়কের কাজ করতো। নাহিদ ও আজিজকে শাবি ক্যাম্পাস থেকে আটক করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের একটি দল।
এদিকে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে একাধিক ছাত্র আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের নিখোঁজ ও অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে।দীর্ঘদিন ধরে শাবিতে ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন না এমন শিক্ষার্থীদের তালিকা চেয়ে ইতিমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে চিঠি পাঠানো হয়েছে। যারা নিয়মিত ক্লাস করেন না তাদেরও তালিকা চাওয়া হয়েছে। এদের পারিবারিক ব্যাকগ্রাউন্ড খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কি কারণে তারা নিখোঁজ বা অনিয়মিত তারও তথ্য চাওয়া হয়েছে।
এছাড়া শাবিতে ভর্তি হওয়ার পর কারা নিখোঁজ রয়েছে তারও তথ্য চাওয়া হয়েছে। তাদের সঙ্গে কোন জঙ্গি কানেকশন আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া শিক্ষার্থীদের কাছ থেকেও সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।
সম্প্রতি গুলশান ও শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার পর থেকে সরকারের পক্ষ থেকে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিখোঁজ ও অনিয়মিত ছাত্রদের তালিকা চাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়েও নিখোঁজ ও অনিয়মিতদের তালিকা তৈরি শুরু করেছে প্রশাসন।
শাবির ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর প্রফেসর ড. রাশেদ তালুকদার বলেন, নিখোঁজ ও অনিয়মিত ছাত্রদের তালিকা চেয়ে প্রতিটি বিভাগেই চিঠি দেয়া হয়েছে। তালিকাটি এখনও তৈরি করা হয়নি। এ ব্যাপারে কোন বিভাগের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত কোন তিালিকাও আসেনি বলে জানিয়েছেন তিনি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল