সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি: মিলেনি প্রশাসনিক অনুমতি – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি: মিলেনি প্রশাসনিক অনুমতি

প্রকাশিত: ৯:০৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২১, ২০১৭

সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি: মিলেনি প্রশাসনিক অনুমতি

সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীকে সামনে রেখে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন এর নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার একই স্থানে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নিজেদের শক্তি জানান দিতে চাইছেন তারা। স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে একপক্ষ ইতোমধ্যে সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়েছেন অপর পক্ষ ‘সদস্য সংগ্রহ অভিযানে’র জন্য অনুমতি চেয়েছেন পুলিশ প্রশাসনের কাছে।
স্বেচ্ছাসেবক দলের ব্যানারে রোববার সিলেট নগরীর পাঠানটুলাস্থ সানরাইজ কমিউনিটি সেন্টারে সমাবেশ আয়োজনের পেছনে রয়েছেন মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম ও জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আহাদ খান জামাল। সে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এম এ হক। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল। অপরদিকে একই দিনে একই স্থানে ‘সদস্য সংগ্রহ অভিযানে’র জন্য অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছেন শহপরান থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক দীপক রায়।
সিলেট বিএনপি মূলত দুটি বলয়ে বিভক্ত। এক পক্ষে আছেন সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী সাইফুর রহমানের অনুসারীরা অন্য পক্ষে আছেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর অনুসারীরা। এর মধ্যে আন্দোলন-সংগ্রামে রাজপথের দখল বলতে গেলে ইলিয়াস অনুসারীদের হাতে। রাজপথের দখল রাখতে বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক, স্বেচ্ছাসেবকদলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ও সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক এডভোকেট সামসুজ্জামান জামানের নেতৃত্বে ইলিয়াস অনুসারীরা আলাদা প্লাটফর্ম হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক দলকেই বেছে নেন। এক সময় সিলেট নগরীতে মূল সংগঠনের চেয়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের কার্যক্রমই বেশি ছিলো।
এবার সিলেটের রাজপথে স্বেচ্ছাসেবক দল মুখমুখি। একই দিনে পাশাপাশি স্থানে আলাদা আলাদা কর্মসূচির ঘোষনা দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবকদল। এই নিয়ে দেখা দিয়েছেন চরম উত্তেজনা।
বিষয়টি নিয়ে এসএমপি অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা জানান, এই বিষয়ে আমি শুনেছি। তবে অনুমোদনের জন্য এসএমপির সংশ্লিষ্ট্র শাখা রয়েছে তারা সবদিক বিবেচনা করে অনুমোদন দিতে পারেন না দিতে পারেন।
এই বিষয়ে জালালাবাদ থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো. আনোয়ারুজ্জামান জানান, স্বেচ্ছাসেবক দল সমাবেশে জন্য এসএমপির সংশ্লিষ্ট শাখায় অনুমোদনের জন্য আবেদন করেছেন। এসএমপি অনুমোদন প্রদান করেন নি। সমাবেশস্থ গিয়ে সমাবেশ আয়োজক কমিটিকে জানিয়ে দিয়ে এসেছি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল