সিলেট জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির ভার্চুয়াল সভা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেট জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির ভার্চুয়াল সভা

প্রকাশিত: ১০:৪২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২০

সিলেট জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির ভার্চুয়াল সভা

ওসমানীনগর প্রতিনিধি :
দেশের শিক্ষা ও সার্বিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে শিক্ষকদের অসামান্য অবদানের স্বীকৃতির স্বরনে শিক্ষক সংকটে নেতৃত্বদাতা, ভবিষ্যতের রূপদর্শী” প্রতিপাদ্যকে সমনে নিয়ে আর্ন্তজাতিক শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে অনুষ্টিত হলো ভার্সুয়াল সভা।

গণস্বাক্ষরতা অভিযানের সহযোগিতায় বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে ৩ ঘন্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত সভায় প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের উর্ধ্ধতন কর্মকর্তাকৃন্দসহ সহকারী শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয়,জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দরা অংশ গ্রহন করেন।

সমিতির সিলেট জেলা শাখার সভাপতি সুহেল আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বিমল দাসের সঞ্চালনায় সভায় শিক্ষকদের বিভিন্ন ন্যায্য দাবি-দাওয়া নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি শিক্ষকদের নীতি ও আদর্শের গুরুত্বারুপ করে দিক নির্দেশনাম‚লক বক্তব্য প্রধান করেন নেতৃবৃন্দরা। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, সিলেট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: বায়েজিদ খান। প্রধান আলোচক হিসাবে অংশ গ্রহন করেন সমিতির নীতি নির্ধারনী কমিটির কেন্দ্রীয় সভাপতি নাসরিন সুলতানা।

বিশেষ অতিথি হিসাবে অংশ গ্রহন করেন, সমিতির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অজিত পাল, গনস্বাক্ষরতা অভিযানের উপ-পরিচালক এনাম‚ল হক, সমিতির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি অনন্ত কুমার তালুকদার, সহ সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কুমার দাস,ত্রিশাল উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তা নুর মো: খান, সমিতির কেন্দ্রী কমিটির সহ কাব ও স্কাউট সম্পাদক তাজুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন,সমিতির হবিগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি বাবুল তালুকদার, মৌলভীবাজার জেলা শাখার সভাপতি এনামুল কবির, সাধারণ সম্পাদক রাজন চক্রবর্তী, সুনামগঞ্জ জেলা শাখার আহবায়ক সাজাউর রহমান, সদস্য সচিব বেনু গোপাল মজুমদার, গণস্বাক্ষরতা অভিযানের কর্মকর্তা সামছুন নাহার কলি। সভায় ম‚ল প্রবন্ধ পাঠ করেন, সমিতির কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মতি লাল দাস গুপ্ত।

কোরআন তিলাওয়াত করেন, দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলার শিক্ষক মামুনুর রশীদ, গীতা পাঠ করেন সমিতির বানিয়াচং উপজেলা শাখার অর্থ সম্পাদক প্রিয়তোষ সরকার। সভায় অংশ গ্রহন করেন, সমিতির সিলেট মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই, শিক্ষক নেতা, রহিমা বেগম, আদুরী রানী দাশ, এমরান আহমদ, উত্তম কুমার দাশ, মস্তফা আহমদ, সাভাষ ঠাকুর, স্বপ্না কামরুল, নরুল হক, অমর চন্দ্র দাশ, জাহাঙ্গির হোসেন, মামনি পলি, পারবর্তী নন্দি, দিপক চন্দ্র কর, তাহির উদ্দিন, তপন কুমার বৈদ্য, শ্যামল দেব, আরিফ নিরধ, ময়ন‚লহক, আমিরুল ইসলাম, রিপন আহমদ,আজিজুর রহমান। এসময় শিক্ষকদের বিভিন্ন কাজে সম্মিলিত প্রচেষ্টার উপর বিশেষ আলোকপাত সভায় প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিবৃন্দ বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে সর্বজনীন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষার লক্ষ্যে পৌঁছাতে সবাইকে এক যোগে কাজ করতে হবে। মেয়েশিশু, প্রতিবন্ধী, শরণার্থী ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকের ব্যবধান দ‚রীকরণে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। শিক্ষক প্রশিক্ষণ, নিয়োগ ও পদোন্নতি, দায়িত্ব ও অধিকার, চাকরির নিরাপত্তা, শৃঙ্খলা বিধানের প্রক্রিয়া, পেশাগত স্বাধীনতা, কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ ও ম‚ল্যায়ন, শিক্ষাসংক্রান্ত নীতিনির্ধারণী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে।

সভার সমাপনিতে ভাল শিক্ষকদের আদর্শ ও সংকট কালীন সময়ে করনীয় ও ভবিষ্যৎ করনীয় সম্পর্কে অলোকপাত প‚র্বক সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের উপর গুরুত্ব দেন ভার্সুয়াল সভায় অংশ গ্রহনকারীরা।