সিলেট বিভাগে একদিনে আক্রান্ত আরও ২০৪ জন – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেট বিভাগে একদিনে আক্রান্ত আরও ২০৪ জন

প্রকাশিত: ৪:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২০

সিলেট বিভাগে একদিনে আক্রান্ত আরও ২০৪ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেট বিভাগে একদিনে ২০৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন সিলেট জেলার ৭৯ জন, সুনামগঞ্জের ৫১ ও হবিগঞ্জের ৫১ জন এবং মৌলভীবাজারে ২৩ জন।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) রাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, এদিন ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে সিলেটের ৭৯ জন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে সুনামগঞ্জের ৫১ জন এবং ঢাকার ল্যাব থেকে হবিগঞ্জের ৫১ ও মৌলভীবাজারের ২৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

এ নিয়ে সিলেট বিভাগে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩ হাজার ৬৪৮ জন। পক্ষান্তরে মঙ্গলবার নতুন করে আরও একজনের মৃত্যুসহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬০ জনে পৌঁছেছে। এরমধ্যে সিলেটে ৪৬, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জে ৫ জন করে এবং মৌলভীবাজারে ৪ জন। এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্তদের মধ্যে রযেছেন সিলেট জেলায় ১ হাজার ৯৫৬ জন, সুনামগঞ্জে ৮৭৪ জন, হবিগঞ্জে ৪৬৩ জন এবং মৌলভীবাজারে ৩৫৫ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়  বলেন, এদিন (মঙ্গলবার) রাত পর্যন্ত মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৮২ জনের করোনা পরীক্ষায় ৭৯ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। শনাক্তদের মধ্যে সিলেট সিটি করপোরেশন ও সদর উপজেলার ৬৩ জন, জৈন্তাপুরে ২ জন, গোয়াইনঘাটে ৫ জন, ওসমানীনগরে ৪ জন, বালাগঞ্জে ২ জন, জকিগঞ্জে ১ জন, গোলাপগঞ্জ উপজেলায় ১ জন এবং শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১ জন রয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হাম্মাদুল হক জানান, এদিন ল্যাবে ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫১ জনের করোনা পজিটিভ আসে।

হবিগঞ্জে ঢাকা থেকে আসা আরও ৫১ জনের মধ্যে মাধবপুর উপজেলার ১৪ জন, সদর উপজেলার ১৩ জন, চুনারুঘাটের ১০ জন, নবীগঞ্জের ৯ জন, আজমিরীগঞ্জের ২ জন, লাখাইয়ের ২ জন ও বানিয়াচং উপজেলার ১ জন রয়েছেন।

সূত্র জানায়, মঙ্গলবার পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৭৮৭ জন।এর মধ্যে সিলেটে ২৬০ জন, সুনামগঞ্জে ২২৪ জন, হবিগঞ্জে ১৭২ জন ও মৌলভীবাজারে ১৩১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে নতুন করে সুস্থ হয়েছেন ৬৩ জন।