সিলেট যুবদল অস্থিত্ব হারাতে বসেছে! কমিটি বিহিন ১৫ বছর – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সিলেট যুবদল অস্থিত্ব হারাতে বসেছে! কমিটি বিহিন ১৫ বছর

প্রকাশিত: ৬:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩০, ২০১৬

সিলেট যুবদল অস্থিত্ব হারাতে বসেছে! কমিটি বিহিন ১৫ বছর

jobodolসিলেট জেলা যুবদলের কমিটি গঠন হয় গত ১৫ বছর আগে। দু’বছর মেয়াদি কমিটি টানা ১৫ বছর পার করেছে। দীর্ঘ ১৫ বছরেও এ কমিটি পূর্ণাঙ্গ রূপ দিতে পারেন নি জেলা যুবদল। আর সিলেট মহানগর প্রতিষ্ঠার পর থেকে আজ পর্যন্ত কমিটি হয়নি সিলেট মহানগর যুবদলের। কমিটির নেতারা কেন্দ্রের কাছে বারবার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের তাগিদ দিয়েও ব্যর্থ হন। কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক এবং বর্তমান নেতাদের কাছে বারবার সিলেটের নেতারা ধন্না দিলেও তা আমলে নেননি তারা। শুধু কেন্দ্র থেকে বলা হয়েছে হচ্ছে, হবে। কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক এবং বর্তমান নেতাদের মাঝে কোনো ধরনের সমন্বয় না থাকার কারণেই এমনটা হচ্ছে বলে মনে করেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। এ কারণে সিলেট যুবদল এখন তার অস্থিত্ব হারাতে বসেছে। ক্ষোভ আর হতাশায় ঘিরে রেখেছে সিলেট যুবদলকে।
আবার অনেকেই দাবী করছেন সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি দীর্ঘ ১৪ বছর পর আসার কারণে যুবদলে নেতৃত্বে দেওয়ার মত নেতা বের হয়ে আসতে না পারায় এই সমস্য সৃষ্টি হয়েছে।
এদিকে সিলেট জেলা যুবদলের সভাপতি আবদুল মান্নান ২০১৪ সাল থেকে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি এখন যুবদলের হাল ছেড়ে দিয়েছেন। এ যুবদলকে এখন একাই টেনে টেনে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুন।
তবে এবার যুবদল সিলেট মহানগর ও জেলার হাল ধরতে মাঠে রয়েছেন সাবেক একদল ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ। যুবদলের কমিটিতে স্থান পেতে মাঠে কাজ করছেন সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি নজিবুর রহমান নজিব, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাফেক মাহবুব ও কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুল আহাদ খান জামাল।
২০০১ সালে দু’বছর মেয়াদি সিলেট জেলা যুবদলের সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকসহ ৩৪টি সম্পাদকীয় পদ ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় কমিটি। পরবর্তী সময়ে এ কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার নিয়ম থাকলেও নানা কারণে তা হয়ে ওঠেনি। এমনকি সিলেটের নেতারা পূর্ণাঙ্গ কমিটি তৈরি করে কেন্দ্রের কাছে নিয়ে গেলেও তা আর আলোর মুখ দেখেনি। তাই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ছাড়াই যুবদলের সাংগঠনিক কার্যক্রম চলছে। অপূর্ণাঙ্গ কমিটির মেয়াদও ১৫বছর আগে শেষ হয়েছে। এখন সিলেটে অস্থিত্ব সংকটে পড়েছে যুবদল। বিগত আন্দোলনেও যুবদলের সঙ্গে সম্পৃক্ত অনেকেই সেই আন্দোলনে শামিল হননি। মাঝে মধ্যে দলের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুনের সঙ্গে দু’চার নেতা শরিক হয়ে মিছিল-সমাবেশ করে অস্থিত্ব জানানোর চেষ্টা করছেন।
যুবদলের নেতৃবৃন্দ মনে করেন অতি দ্রুত নতুন কমিটি গঠন করা জরুরি হয়ে পড়েছে। কমিটি গঠন না হলে নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে আসবে না। সিলেট যুবদলকে শক্তিশালী করতে হলে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে কমিটি গঠন করতে হবে। তবে কেন্দ্রীয় নেতাদের ঢাকায় বসে নয়, সিলেটে এসে এ কমিটি গঠন করার আহ্বান জানান তিনি।
প্রসঙ্গত, ২০০১ সালে সিলেট জেলা যুবদলের কমিটি ঘোষণা করা হয়। ৩৪ সদস্যের এ কমিটির মেয়াদ ছিল দু’বছর। আর এ কমিটি ছিল অপূর্ণাঙ্গ। কিন্তু দীর্ঘ ১৫ বছরও পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি। এ নিয়ে দলের ভেতরও অস্থিরতা শুরু হয়। পদের আশায় বসে অনেকে যুবদলের পরিচয়ও দেন না। অনেকে বিএনপি রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছেন। অপরদিকে সিলেট মহানগর প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত মহানগর শাখায় যুবদলের কোনো কমিটি গঠন হয়নি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল