‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংবিধান সংশোধনের পরামর্শ মওদুদের’ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংবিধান সংশোধনের পরামর্শ মওদুদের’

প্রকাশিত: ৩:১২ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩, ২০১৮

‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংবিধান সংশোধনের পরামর্শ মওদুদের’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন করতে, গণতন্ত্র ফেরাতে এবং দেশের মানুষদের অধিকার ফিরিয়ে আনতে সংবিধান কোনো বাধা হয়ে দাঁড়ায় না। তাই সুষ্ঠু নির্বাচন করতে আরেকটি সংশোধন করতে হবে।

জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে শনিবার দুপুরে ‘প্রতিহিংসার রজনীতি: জাতীয় নির্বাচন ও বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ২০ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবিতে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ লেবার পার্টি।

জাতীয় সংসদ নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী হবে, সরকারি দলের এমন কথার প্রেক্ষিতে ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, সংবিধানের কথা যারা বলেন তারা খুব ভালো করেই জানেন, সংবিধান জাতীয় স্বার্থ, জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটায়। যে সংবিধান ওই প্রতিফলন ঘটাতে পারে না, তখন রাজনৈতিক সমঝোতার মাধ্যমে সেটা সমাধান করা হয়।

সাবেক এই আইনমন্ত্রী বলেন, সংবিধানে আছে জনগণ সমস্ত ক্ষমতার উৎস। সেটাই যদি হয়, সংবিধান কখনো বাধা হয়ে দাঁড়ায় না। সুতরাং এখন যারা বলছেন সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন করতে হবে, বেগম খালেদা জিয়াও বলেছিলেন ৯৪-৯৫ সালে যে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে, সে কথা তো আপনারা (আওয়ামী লীগ) শোনেন নাই।’

তিনি বলেন, আপনারা (আওয়ামী লীগ) চান খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে নির্বাচন করে ক্ষমতা দখল করতে। কিন্তু এ সুযোগ দেশের মানুষ আর আপনাদের দিবে না। জনগণকে ভোট দেয়ার সুযোগ দিন তাহলে দেখবেন আপনাদের কি অবস্থা হয়। মানুষ ভোট দিতে পারলে আপনাদেরকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না। জনগণ বিএনপিকে ভোট দিয়ে খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী বানাবে।

এসময় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্য করে বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে পরাজিত করতে শুধু একটা শ্লোগান দেন, যে ৫০ টাকা কেজি চাল খাবো না, নৌকায় ভোট দিব না। ১১০ টাকার পেঁয়াজ খাবো না, নৌকায় ভোট দিব না। আর কোনো শ্লোগানের দরকার হবে না। ৯০ ভাগ মানুষ আপনাদেকে এই শ্লোগানের সমর্থন দিবে।

সরকারকে উদ্দেশ্য করে মওদুদ বলেন, আপনারা মনে করেছেন বিএনপি ও খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচন করবেন? কিন্তু সে আশা কখনও পূরণ হবে না। বেগম জিয়া ছাড়া দেশে আর কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেয়া হবে না।

লেবার পার্টির সভাপতি ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মীর নাসির উদ্দিন, বরকত উল্লাহ বুলু, নিতাই রায় চৌধুরী প্রমুখ।