সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের যুক্তরাজ্য প্রবাসী প্রাক্তণ শিক্ষার্থীরা অসুস্থ জলিলের পাশে দাড়িয়েছে – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের যুক্তরাজ্য প্রবাসী প্রাক্তণ শিক্ষার্থীরা অসুস্থ জলিলের পাশে দাড়িয়েছে

প্রকাশিত: ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৬

সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের যুক্তরাজ্য প্রবাসী প্রাক্তণ শিক্ষার্থীরা অসুস্থ জলিলের পাশে দাড়িয়েছে

20160909_181235-copyসুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী গ্রাম সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের যুক্তরাজ্য প্রবাসী প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা প্রতিষ্টানটির বর্তমান দপ্তরী অসুস্থ আব্দুল জলিল এর পাশে দাড়িয়েছে। আব্দুল জলিল কিছু দিন ধরে অসুস্থতায় ভোগছিলেন। প্রয়োজনীয় অর্থের অভাবে তিনি উন্নত চিকিৎসা করতে অক্ষম। তাই তাঁর পাশে দাড়ালেন স্কুলপড়ুয়া সাবেক শিক্ষার্থীগন।
জানাগেছে, প্রতিষ্ঠানের প্রাক্তন ছাত্র, শিক্ষানুরাগী, যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো: ওলি আহমদ রুনু ও মল্লিক ওয়াহিদ মিয়া অসুস্থ আব্দুল জলিলের সুচিকিৎসার জন্য অর্থনৈতিক সহায়তার উদ্যোগ নেন। তাদের এই মহতি উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য প্রবাসী প্রাক্তন শিক্ষাথীগন ও এগিয়ে আসেন। এব্যাপারে আলোকিত সমাজ কল্যান সংস্থার প্রতিস্ঠাতা সভাপতি সৈয়দ হাফিজ উদ্দীন বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রবাসীগন এ যাবত প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা আব্দুল জলিলকে সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
এ উপলক্ষে  গত ৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকাল ২টায় সৈয়দপুর সাধারন পাঠাগারের হলরুমে নগদ অর্থ প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পাঠাগারের সাবেক পরিচালক সৈয়দ মনোয়ার আলীর সভাপতিত্বে ও গ্রীণ সৈয়দপুরের সমন্বয়কারী সৈয়দ হাফিজ উদ্দীনের পরিচালনায় অনুষ্টিত সভায় বক্তব্য রাখেন সাধারন পাঠাগারের বর্তমান পরিচালক সৈয়দ আহমদ আলী, সাবেক পরিচালক মাস্টার সৈয়দ হুসবাননুর, সাবেক পরিচালক সৈয়দ শেফুল আমিন, সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র যুক্তরাজ্য প্রবাসী সমাজসেবক শিক্ষানুরাগী ওলি আহমদ রুনু, পাঠাগারের বর্তমান গ্রন্থ পরিচালক সৈয়দ হিলাল আহমদ । অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পাঠাগারের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য সৈয়দ ওবায়দুল হক মছনু, পাঠাগারের সদস্য নুর জামাল, মনির উদ্দিন খান মিম্বর, সাবেক গ্রন্থ পরিচালক মনসুর কোরেশী,সাবেক গ্রন্থ পরিচালক রাহিন তালুকদার, পাঠাগারের বর্তমান অর্থপরিচালক মো: সুজেল খান, সদস্য সাংবাদিক ইয়াকুব মিয়া, সৈয়দ এমদাদ আহমদ, বদরুল ইসলাম, আব্দুস সফেদ প্রমুখ। বিদ্যালয়ের দপ্তরী আব্দুল জলিলের হাতে অনুষ্ঠানিক ভাবে সর্বশেষ অনুদান ৫০ হাজার টাকা চেক প্রদান করেন অতিথিবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্য প্রবাসী সমাজসেবক শিক্ষানুরাগী ওলি আহমদ রুনু তার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন-অসুস্থ দপ্তরী আব্দুল জলিলের জন্য আমরা সাবেক শিক্ষার্থীরা মিলে সর্বমোট আড়াই লক্ষ টাকার ফান্ড সংগ্রহ করি। তার মধ্যে ২ লক্ষ টাকা আগে বিভিন্ন জনের মাধ্যমে আমরা প্রদান করি এবং সর্বশেষ এখন ৫০ হাজার টাকার নগদ চেক প্রদান করে আমরা এই ফান্ড কালেকশনের কাজ সমাপ্ত করি। তিনি আরো বলেন, সমাজের বিত্তবানরা যদি দরিদ্র জনগোষ্টির দিকে একটু নজর দেন তাহলে এদেশকে দারিদ্র মুক্ত করা সহজ হবে। তিনি বলেন যারা আব্দুল জলিলকে আর্থিক সহায়তা করেছেন তারা সত্যিই ভাগ্যবান, আমি আমার সকল সহকর্মীদের যারা সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন তাদের সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এবং এভাবে আরো অন্যান্য দুস্থ;পরিবারের সহায়তা এগিয়ে আসার জন্য মহান আল্লাহর নিকট সাহায্য কামনা করেন।