স্পর্শিয়া এখন আরো উজ্জ্বল – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

স্পর্শিয়া এখন আরো উজ্জ্বল

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৯, ২০১৬

স্পর্শিয়া এখন আরো উজ্জ্বল

spo-1ছোটবেলা থেকে অভিনয় করবেন বা তারকা এমন স্বপ্ন ছিল না এ সময়ের অন্যতম গুণী মডেল-অভিনেত্রী অর্চিতা স্পর্শিয়ার। তবে ভাগ্যে যেহেতু তারকাখ্যাতি লেখাই ছিল তাই ভাগ্যলক্ষীকে পায়ে ঠেলে ফেলে দেওয়ার মতো বোকা নন স্পর্শিয়া। তাইতো তাঁর সমস্ত ভাবনা জুড়ে এখন শুধুই অভিনয়। তবে অভিনয় করতে করতে মনে মধ্যে একটি স্বপ্ন বুনে চলছিলেন অজান্তেই।

আর তা হলো নিজের একটি ‘প্রোডাকশন হাউজ’ থাকবে। যেখান থেকে তার ভাবনা নিয়ে তৈরি হবে চলচ্চিত্র। সেই প্রোকাডশন হাউজের নাম হবে একটি মাত্র বাংলা শব্দে। অবশেষে নিজের স্বপ্ন পূরণের প্রথম পদক্ষেপ নিয়েই ফেললেন জননন্দিত এই তারকা। বাচ্চাদেও স্কুলিং শুরুর আগে যেমন প্রি-স্কুল শেষ করতে হয় তেমনি স্পর্শিয়ার প্রোডাকশন হাউজ ‘গীরী’ তার কাজ মূল শুরুর আগে একটি টেস্ট পদক্ষেপ নিয়ে ফেলেছে। ইতোমধ্যেই স্পর্শিয়ার লেখা কোন কাগজে-কলমের গল্পটি হয়ে উঠছে ছোটপর্দার বাঙময় কবিতা। মানে নাট্যকার স্পর্শিয়ার যাত্রা শুরু হয়েছে সম্প্রতি। তার বেশ কিছু পা-ুলিপি লেখা আছে।

এক এক করে সবগুলোই টিভি পর্দায় আনবেন, নির্মাণ করবেন স্বামী রাফসান আহসানÑগত বছর বিয়ের পর এমন ঘোষণাই দিয়েছিলেন অর্চিতা স্পর্শিয়া। কথা রাখলেন এই মডেল-অভিনেত্রী। এরই মধ্যে প্রথম নাটক ‘চলো স্বপ্ন দেখি’র শুটিং করেছেন দুই দিন। এক দিনের শুটিং এখনো বাকি। এতে অভিনয়ও করেছেন স্পর্শিয়া। পরিচালক রাফসান বলেন, ‘মানবিক সম্পর্কের গল্প। মাত্র দুটি চরিত্র এখানে। স্পর্শিয়া ছাড়া অন্য চরিত্রটি করছেন তৌসিফ মাহবুব। দুজনই ক্যান্সারে আক্রান্ত, একই হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে দুজনই সেখান থেকে পালায়। তবে এটা কোনো প্রেমের গল্প নয়।’ নাট্যকার ও অভিনেত্রী স্পর্শিয়া বলেন, ‘নাট্যকারের পরিচয় দিতে এখনো লজ্জা পাচ্ছি, প্রথম কাজ তো! তবে নির্মাণে রাফসান কোনো ত্রুটি রাখেনি। ঈদে প্রচার করা হবে নাটকটি। প্রচারিত হওয়ার পর দর্শকের ফিডব্যাক দেখে বুঝতে পারব, কী করেছি আমরা।’

নিজের প্রোডাক্টশন হাউজ যেহেতু খুলেছেন সেহেতু তা নিয়ে এখন ব্যস্ততাতো থাকবেই। তাই বলে অণ্যেও কাজে কম পাওয়া যাবে তা কিন্তু নয়। বরং এই বছরটাকে অনেক লাকি মনে করছেন স্পর্শিয়া। তিনি বললেন, ‘ধারাবাহিক নাটক বন্ধ করে দিয়েছি। আর শিগগিরই ফেরার ইচ্ছা নেই। এখন যতো ব্যস্ততা একক নাটক ঘিরে। প্রথমে ভেবেছিলাম সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি তো? কিন্তু এখন সেই সংশয় কেটে গেছে। প্রতিনিয়ত ভালো ভালো স্ক্রিপ্ট পাচ্ছি। ধারাবাহিক করি না কাজের মান থাকে না বলে। এক ঘন্টার নাটকেও যদি সেই মানহীনতা প্রকাশ পায় তা হলে কি কওে হবে। এজণ্য এখানে আমি বেছে বেছে কাজ করছি। কিন্তু আমি খুবই ভাগ্যবান। কারণ ঈদেও আগের দিন পর্যন্ত আমার সমস্ত সিডিউল দেওয়া হয়ে গেছে কোন না কোন নাটকের জন্য। এজণ্য আমি কৃতজ্ঞ আামার ভক্ত-পরিচালক ও প্রযোজকদের কাছে। কারণ তারা সব সময় আমাকে ভালো কাজের জন্যই ডাকেন।’

এতো অল্প বয়সে স্পর্শিয়া সব পেয়ে গেছেন। এমনকি বিয়ে থা করে সংসারও গুছিয়ে নিচ্ছেন। অনেকে মনে করেন বিয়ে করলে নাকি নায়িকাদের আর চাহিদা থাকে না। এই কথা যে ভুল তাঁর প্রমান স্পর্শিয়া। কারণ তিনি বিয়ের আগের চেয়ে এখন আরো বেশি করে অভিনয়ে মনোনিবেশ করেছেন। এমনকি নিজের প্রোডাকশন হাউজ ‘গীরী’ থেকে প্রথম চলচ্চিত্র তৈরির কাজও অনেক দূর গুছিয়ে ফেলেছেন। সামনের বছরেই হয়ত শুটিংয়ে হাত দেবেন। নিজের ছবির নায়িকা নিজেই হবেন কিনা জানতে চাইলে স্পর্শিয়া লাজুক কণ্ঠে বলেন, ‘আসলে নিজের কাজ নিজেই করতে খুব লজ্জা লাগে। কিন্তু পরিচালকের চোখ দিয়ে দেখেই আমার স্বামী আমাকেই নায়িকা করতে চাইছেন। আর নায়ক হিসাবে আমরা তৌসিফকে ভেবেছি। কারণ জুটি হিসাবে দর্শকের কাছে আমাদের আলাদা গ্রহনযোগ্যতা তৈরি হয়েছে। সবমিলিয়ে আমরা ভিন্ন কিছু নিয়েই হাজির হতে চাই।’

spo

এদিকে, সম্প্রতি সম্পর্শিয়া তার ছোটবেলার বন্ধু রোহান রহমানের পরিচালনায় একটি নাটকে অভিনয় করেছেন। ‘দেয়ালের ওপাশের গল্প’। গল্পটি মূলত একটি প্যারালাল গল্প সেই গল্পের একদিকে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক যার অধীনে থাকা এক ছাত্রী আত্মহত্যা করে। অন্যদিকে দুটি মানুষ সেই রুপকে নিয়েই ফিরে আসে অধ্যাপকের জীবনে। এভাবেই ঘটতে থাকে নানা ঘটনা। ছাত্রীর চরিত্রে রয়েছেন স্পর্শিয়া। আরো অভিনয় করেছেন সজল ও পিয়া বিপাশা। আসছে ঈদে নাটকটি একটি বেসরকারী চ্যানেলে প্রচার হবে। ঈদের কাজের জন্য আগামী মাসের শেষের দিকে মালদ্বিপে যাওয়ার কথা রয়েছে স্পর্শিয়ার। সেখানে সাখাওয়াত মানিকের দুটি এক ঘন্টার নাটকে অভিনয় করবেন তিনি।

সবমিলিয়ে প্রচন্ড ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে সময় কেটে যাচ্ছে তাঁর। আর এই যাপিত জীবনের মধ্যদিয়ে স্বামীকেও নাকি দিনে দিনে আরো ভালোকরে পড়তে শিখছেন এই অভিনয়শিল্পী। কারণ সামনের দিনগুলো হাত ধরাধরি করেই কাটাতে চান স্পশিয়া-রাফসান।