হামলার সম্ভাবনাঃ ৪ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

হামলার সম্ভাবনাঃ ৪ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন

প্রকাশিত: ৯:৪১ অপরাহ্ণ, মার্চ ৬, ২০১৮

হামলার সম্ভাবনাঃ ৪ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন

ডেস্ক রিপোর্ট:: সিলেটের দক্ষিণ সুরমা বরইকান্দি এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা গৌছ মিয়া ও আলফু চেয়ারম্যানের সমর্তকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দাওয়া পাল্টা-ধাওয়ায় ২ জন নিহত হয়।

নিহতরা হলেন বাবুল মিয়া (৩৫) ও মাসুক মিয়া (৫৫)। এসময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন প্রায় ৩০-৪০জন। জনমনে চরম আতংক বিরাজ করছে। যে কোন সময় অরো বড় ধরনের হামলার আশংকা করছেন সাধারণ মানুষ।
চরম উত্তেজনা, উৎকণ্ঠায় রয়েছেন এই এলাকার সাধারণ মানুষ। তাদের মনে আশংকা বিরাজ করছে যে কোন সময় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়তে পারে দু’পক্ষ।

নিহতের জানাযা আজ মঙ্গলবার বাদ এসা স্থানীয় এলাকাতে সম্পন্ন হয়। জানাযার নামাজ পরে প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা হতে পারে বলে জানিয়েছে স্থানীয় একটি সূত্র। থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে পুরো এলাকায়। রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের সম্ভাবনা রয়েছে এলাকা জুড়ে।

এলাকাবাসিরা জানান নিহতরা গৌছ মিয়ার লোক। বাবুল ও মাসুক মিয়া উভয়ে বরইকান্দির ৩নং রোডের শাহপরান মিল সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা।

সোমবার সকালে স্থানীয় ভাবে কথাকাটির জের ধরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুটি পক্ষ। দাওয়া পাল্টা-ধাওয়ায় ৩৫ থেকে ৪০ রাউন্ড গুলি ছুড়া হয় জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

আওয়ামী লীগ নেতা গৌছ মিয়া বরইকান্দি ৩নং রোড এলাকা ও কোম্পানিগঞ্জের ৩নং তেলিখাল ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আলফু মিয়া ১০নং রোডের কাজি বাড়ির বাসিন্দা।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষে ১৭ জন লোক গুলিবিদ্ধ হয়। আহতদের ওসমাসনী হাসপাতাল সহ স্থানীয় কয়েকটি ক্লিনিকে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
গত সোমবার দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দি ৩নং রোডে সিএনজি অটোরিক্সার ভাড়া নিয়ে কথা কাটাকাটির জের ধরে মারামারির সূত্রপাত ঘটে। তখন গুলাগুলি ও দোকানপাঠ ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে তখন ১০টি দোকানপাট ভাংচুর ও গুলাগুলি হয়। সে সময় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় ৩ জন আহত হয়।
মঙ্গলবার ভোর রাতে উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়ানোর চেষ্টা করে। খবর পেয়ে দুই প্লাটুন পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে টহল দেয়ায় সে সময় কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

সংঘর্ষস্থল পরিদর্শন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু জাহিদ, পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক সহ স্থানীও আওয়ামী লীগের নেতারা।

এব্যাপারে দক্ষিণ সুরামা থানার ওসি খায়রুল ফজলের সাথে কথা হলে তিনি সিলেট সংবাদ ২৪ ডটকম-কে বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। হামলা হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। বর্তমানে ৪ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। প্রয়োজনে আরো পুলিশ মোতায়েন করা হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল