২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পিন্টুর বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পিন্টুর বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত: ২:২৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৪, ২০২০

২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পিন্টুর বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেট নগরীর ২৫ নং ওয়ার্ডে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ত্রাণ বিতরণে (খাদ্য সহায়তা) অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২৫,২৬ ও ২৭নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র এডভোকেট রোকশানা বেগম শাহনাজ এই অভিযোগ তুলেছেন।

তিনি জানান, ২৫ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও ২৫,২৬ ও ২৭ সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ৩ বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর হওয়া সত্ত্বেও ২৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু তাকে উপেক্ষা করে ত্রান বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

কাউন্সিলর রোকসানা বেগম শাহনাজ অভিযোগ করেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২৫ নং ওয়ার্ডে বিতরণের জন্য ৫ হাজার প্যাকেট ত্রাণের চাহিদাপত্র প্রদান করেন কাউন্সিলর তাকবিরুল ইসলাম পিন্টু। সেই পরিমাণ ত্রাণ ইতোমধ্যে কাউন্সিলর পিন্টু ইতোমধ্যে ট্রাক যোগে তার খোজারখলাস্থ বাড়িতে নিয়ে এসেছেন। তার বাড়িতে এ সব মালামাল রেখে প্যাকেটজাত করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে ২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলরবৃন্দ ত্রাণ বিতরণ করেছেন যে কার্যক্রমে ২৫,২৬ ও ২৭ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসেবে তিনি অংশগ্রহণ করেন। শুক্রবার খোজারখলা ও বরইকান্দি এলাকায় কাউন্সিলর পিন্টু ত্রাণ বিতরণ শুরু করেন, কিন্তু সংরক্ষিত কাউন্সিলর এডভোকেট রোকসানাকে এ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করেননি।

এডভোকেট রোকসানা বেগম শাহনাজ জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশনে ত্রাণ বিতরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল ও জেলা প্রশাসনের সরকারী বরাদ্দের পাশাপাশি সিলেটের বিত্তবান দানশীল ব্যক্তিদের কাছ থেকে অনুদান সংগ্রহ করে বিশেষ ত্রাণ তহবিল গঠন করেছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

এই ত্রাণ বিতরণের জন্য এক জন ম্যাজিস্ট্রেট, একজন ট্যাগ অফিসার ও স্থানীয় সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলরকে সম্পৃক্ত করে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর কর্তৃক বিতরণের নির্দেশনা রয়েছে। কিন্তু, ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিজের ইচ্ছেমত এই ত্রাণ বিতরণ করছেন। তিনি তার মন মতো তালিকা প্রস্তুত করে কেবলমাত্র নিজের আস্থাভাজন লোকজনকে বিতরণ করছেন। অনেক স্থানে নিজে বিতরণ না করে পাড়ার ক্লাবগুলোকে কয়েকটি প্যাকেট বরাদ্দ দিয়ে দায়িত্ব শেষ করছেন।

এডভোকেট রোকসানা জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশেনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী স্বাক্ষরিত ‘২৭টি ওয়ার্ডে খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম পরিচারনা ও তদারকির জন্য ট্যাগ অফিসার নিয়োগ’ সংক্রান্ত এক সার্কুলারে স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে- ‘জেলা প্রশাসক কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত ট্যাগ অফিসার ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক গঠিত নির্ধারিত টিম এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সমন্বয়ে ত্রাণ বিতরণের জন্য অনুরোধ করা হলো’। অথচ এই নির্দেশনা অগ্রাহ্য করে কাউন্সিলর পিন্টু তার মতমতো ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। এতে ত্রাণে যথারত বিতরণ ও স্থানীয় কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু কর্তৃক বরাদ্দকৃত ত্রাণ আত্মসাতের আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে জনমতে।

এডভোকেট রোকসানা বেগম শাহনাজ জানান, বিষয়টি তিনি সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও সংশ্লিষ্ট ট্যাগ অফিসারকে জানালেও কোন সদুত্তর পাননি।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু বলেন, আমি গত এক সপ্তাহ ধরে আমার ওয়ার্ডে ত্রাণ বিতরণের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করছি। সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর একবারও খোঁজ নেননি। উপরন্তু, তাকে নিয়ে আসার জন্য আমি লোক পাঠিয়েছি, কিন্তু তিনি বাসায় ছিলেন না।

এছাড়া, আমি আমার ওয়ার্ডে ত্রাণ বিতরণ করতে সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলরকে রাখতে হবে- এ ধরনের কোন নির্দেশনাও নেই। সুতরাং, আমি নিজে সশরীরের উপস্থিত থেকে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •