৩৪ লাখ ৬০১৭১ জনের করোনা জয় – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

৩৪ লাখ ৬০১৭১ জনের করোনা জয়

প্রকাশিত: ৬:১৫ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২০

৩৪ লাখ ৬০১৭১ জনের করোনা জয়

অনলাইন ডেস্ক

প্রাণঘাতী করোনা বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব চালালেও এর প্রকোপ ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে। এই ভাইরাসে সুস্থতার সংখ্যাও বাড়ছে উল্লেখযোগ্য হারে। সোমবার এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩৪ লাখ ৬০ হাজার ১৭১ জন। এ তথ্য জানিয়েছে করোনার লাইভ আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার।
এছাড়াও করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের হিসাব দিয়ে আসা ওয়ার্ল্ডওমিটারের সর্বশেষ পরিসংখ্যান বলছে, এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ৭ লাখ ৮৬ হাজার ৪৭৬ জন মানুষ এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪ লাখ ৬ হাজার ১২৬ জন মানুষ।
করোনার আক্রমণে সবচেয়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ২০ লাখ ৭ হাজার ৫৮। এছাড়াও দেশটিতে এ ভাইরাসে মারা গেছেন ১ লাখ ১২ হাজার ৪৬৬ জন। আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের ধারেকাছে নেই কোনো দেশ।
এদিকে বাংলাদেশ ও ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতেও করোনার সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। ভারতে করোনায় আক্রান্ত ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫০৬ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৭ হাজার ২০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১ লাখ ২৩ হাজার ৮৪৮ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।
করোনায় শনাক্ত মানুষের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরপরই রয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। সেখানে এখন মোট আক্রান্ত প্রায় ৭ লাখ। দেশটিতে করোনায় মৃত্যু ছাড়িয়েছে ৩৬ হাজার।
এদিকে করোনা রোগী শনাক্তের দিক দিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৬৭৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এতে মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৮৫৯ জনের।
গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় চীনে। এরপর ইউরোপে তাণ্ডব চালায় প্রাণঘাতী এ ভাইরাস। তবে এখন ভাইরাসটির সংক্রমণের কেন্দ্র দক্ষিণ এশিয়া ও আমেরিকা। আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দীর্ঘদিন ধরে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।
প্রাণঘাতী এই করোনার এখনও কোনো ওষুধ বা প্রতিষেধক তৈরি হয়নি। তবে বিশ্বের অনেক দেশ মহামারি ইবোলার ওষুধ রেমডেসিভির ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, ১২৫টিরও বেশি সম্ভাব্য ভ্যাকসিন তৈরির কাজ চলছে। এর মধ্যে দশটি মানবদেহে প্রয়োগ হয়েছে। অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন সবচেয়ে এগিয়ে আছে।