৬ লক্ষ টাকার জন্য দক্ষিণ সুরমায় স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

৬ লক্ষ টাকার জন্য দক্ষিণ সুরমায় স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

প্রকাশিত: ৪:১৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৩, ২০২০

৬ লক্ষ টাকার জন্য দক্ষিণ সুরমায় স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি
দক্ষিণ সুরমায় ৬ লক্ষ টাকার জন্য নিজাম আহমদ (৪০) নামে এক ব্যক্তি স্ত্রীর হাতে খুন হয়েছেন। খুন হওয়া ব্যক্তি দক্ষিণ সুরমার পশ্চিম মোমিনখলা গ্রামের আব্দুল গফফার (হারুন মিয়া) এর বাসার ভাড়াটিয়া ছিলেন। তার মূল বাড়ী কালিঘাট ছড়ারপার এলাকায়। তিনি প্রায় ৫/৬ বৎসর যাবৎ স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে এই ভাড়াটিয়া বাসায় বসবাস করে আসছেন এবং দক্ষিণ সুরমা বাইপাস রোডে নিজাম ট্রান্সপোর্ট নামে ট্রান্সপোর্ট ব্যবসা করতেন।
জানা যায়, ২২ জুলাই বুধবার মধ্য রাতের কোন এক সময়ে নিজাম আহমদের স্ত্রী জেনি বেগম তার স্বামীকে খুন করে বাচ্চাদের সাথে নিয়ে রুমের দরজায় তালা দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাদের ঘর তালাবদ্ধ দেখে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে তারা পুলিশকে খবর দিলে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে রুমের তালা ভেঙ্গে রুমের ভেতরে ঢুকে নিজাম উদ্দিনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। লাশ উদ্ধার করার সময় লাশের ঘাড়ে ধারালো দা এর আঘাত এবং পুরুষাঙ্গ কাটা পাওয়া যায়। এসময় লাশের পাশ থেকে একটি ধারালো দা ও উদ্ধার করা হয়। নিহত নিজামের স্ত্রী জেনি বেগমের বাবার বাড়ী ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ঘিলাছড়া মাঝপাড়া গ্রামে।
এ ব্যাপারে নিহত নিজাম আহমদের বড় ভাই আছলাম আহমদের সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কথা বললে তিনি জানান, জায়গা কিনার জন্য ৬ লক্ষ টাকা তার নিহত ভাইয়ের ভাড়াটিয়া বাসায় রাখা ছিল। ঐ টাকা নিহত নিজাম আহমদের স্ত্রী তার বাবার বাড়ীতে নিয়ে তার পিতার কাছে রাখে। জায়গা কিনার জন্য টাকার প্রয়োজন হওয়ায় নিজাম আহমদ টাকার জন্য তার স্ত্রীকে বললে বাক বিতন্ডা শুরু হয়। এই টাকা নিয়ে কয়েকদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া ঝাটি চলছিল। এই টাকা আত্নসাৎ করার জন্য নিজামকে পরিকল্পিত ভাবে খুন করা হয়েছে বলে জানান নিহত নিজামের বড় ভাই আছলাম এবং ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান। খুনীকে গ্রেফতারের জন্য প্রশাসনের নিকট জোর দাবীও জানান তিনি।
এ ব্যাপারে উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জ্যুতিময় সরকার পিপিএম-এর সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, খুনের খবর পেয়ে আমাদের দক্ষিণের ডিসি স্যার ও দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ময়না তদন্তের জন্য লাশ সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে। হত্যাকারীকে গ্রেফতারের জন্য আমরা জোর তৎপরতা চালাচ্ছি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল