৯৯৯-এ ফোন: সিলেটে মসজিদ-মন্দির কমিটির উত্তেজনা থামালো পুলিশ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

৯৯৯-এ ফোন: সিলেটে মসজিদ-মন্দির কমিটির উত্তেজনা থামালো পুলিশ

প্রকাশিত: ৮:২৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০২১

৯৯৯-এ ফোন: সিলেটে মসজিদ-মন্দির কমিটির উত্তেজনা থামালো পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটে একটি পুকুর দখল নিয়ে মসজিদ ও মন্দির কমিটির লোকজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়েছে। মহানগরীর জালালাবাদ থানার নয়াবাজার এলাকায় আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় এ ঘটনা ঘটে। জাতীয় জরুরুী সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উভয় পক্ষ্যকে নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আজ রোববার জালালাবাদ থানার নয়াবাজার সাকিনস্থ মুসলিম নগর জামেয়া মসজিদ ও শ্রী শ্রী গৌরাঙ্গ মহা প্রভুর আখড়ার মধ্যবর্তী পুকুরের মালিকানা দাবী নিয়ে মসজিদ ও মন্দিরের লোকজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। দুপুর সাড়ে ১২টায় মন্দির কমিটির স্থানীয় ব্রাহ্মনশাসন গ্রামের সবিনয় কুমার দাসের ছেলে রাংকু কুমার দাস (৪৫), বিনয় বিহারী দাসের ছেলে রঞ্জুন কুমার দাস (৫০) ও তাদের আত্মীয়-স্বজন মিলে ওই পুকুরের কচুরিপানা পরিষ্কার করছিলেন। এসময় স্থানীয় মোহাম্মদীয় গ্রামের মসজিদ কমিটির মোঃ মাহমুদ হোসেনের ছেলে জাকির হোসেন (১৯),উজ্জীবন গ্রামের মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে জুয়েল আহমদ (৩৮), ও মোহাম্মদীয় গ্রামের মৃত আব্দুল রকিবের ছেলে মোঃ লাহিন (২৬) মন্দির কমিটির লোকজনদের বাধা প্রদান করেন। এসময় জাতীয় জরুরুী সেবা ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে পুলিশের ডিউটিরত অফিসার এসআই মোঃ আমিনুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।পুলিশ প্রাথমিকভাবে উভয়পক্ষকে বিশৃংঙ্খলা সৃষ্টি না করার জন্য অনুরোধ করলে তারা উভয় পক্ষ শান্ত থাকার প্রতিশ্রতি দিয়ে যার যার অবস্থানে চলে যান। পুকুরের মালিকানা দাবী নিয়ে কারো কোন প্রকার অভিযোগ থাকলে আদালতে আশ্রয় নেওয়াসহ থানায় অভিযোগ প্রদানের জন্য পুলিশ পরামর্শ প্রদান করে।বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে এবং ঘটনার বিষয়ে পুলিশি নজরদারী অব্যাহত রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল